মধ্যপ্রদেশে পুরুষ নার্সের ধর্ষণে মৃত্যু করোনা রোগীর

শুক্রবার, মে ১৪, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভোপাল শহরে এক সরকারি হাসপাতালের পুরুষ নার্সের ধর্ষণের শিকার হয়ে মৃত্যু হয়েছে চিকিৎসাধীন এক করোনা রোগীর। এক মাস আগে ঘটে যাওয়া এই ঘটনা সম্প্রতি জনসমক্ষে প্রকাশ করেছে ভোপাল পুলিশ। অভিযুক্ত ওই পুরুষ নার্স বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে আছে।

ভোপাল পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অভিযুক্ত ওই নার্সের নাম সন্তোষ আহিরওয়ার (২৪)। বর্তমানে তিনি কারা অন্তরীণ আছেন।

ভোপালর নিশতপুর থানা পুলিশের জেষ্ঠ্য কর্মকর্তা ইরশাদ ওয়ালি ভারতের সংবাদসংস্থা এনডিটিভি অনলাইনকে জানিয়েছেন, গত ৬ এপ্রিলে ঘটেছিল ঘটনাটি। ভোপালের ‘ভোপাল মেমোরিয়াল হসপিটাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার’ নামের একটি সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন ৪৩ বছর বয়সী ওই করোনা আক্রান্ত নারী।

চিকিৎসা সেবা দেওয়ার নামে ৬ এপ্রিল ওই নারীকে ধর্ষণ করে সন্তোষ। তার ২৪ ঘণ্টা পরই মারা যান তিনি। তবে মারা যাওয়ার আগে নিশতপুর থানায় ও হাসপাতালের এক চিকিৎসকের কাছে অভিযোগ জানিয়েছিলেন তিনি, অভিযুক্ত ধর্ষক সন্তোষ আহিরওয়ারকে চিহ্নিতও করেছিলেন।

ঘটনা ঘটার এক মাস পর সেটি কেন জনসমক্ষে আনা হলো— প্রশ্নের উত্তরে ইরশাদ ওয়ালি বলেন, ‘ওই নারী অনুরোধ করেছিলেন, তার নাম যেন প্রকাশ না করা হয় এবং গোপনে যেন তদন্ত করা হয়। এ কারণে তদন্তকারী দল ছাড়া আর কাউকে এ বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।’

ইরশাদ ওয়ালি জানান, অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে এর আগেও যৌন হেনস্থার অভিযোগ রয়েছে। এবং মদ্যপান করে ডিউটি করার অভিযোগও উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে।

তিনি আরও বলেন, হাসপাতালের রোগীদের যথযথ নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ওই হাসপাতালের নিরপত্তা বিভাগের কর্মকর্তাদেরও অভিযোগের আওতায় আনার বিষয়ে বিবেচনা করছে পুলিশ।

সূত্র: এনডিটিভি