ঝিনাইদহে অবৈধভাবে ভারত থেকে আসা ৩ জনের করোনা শনাক্ত

শুক্রবার, মে ১৪, ২০২১

ঝিনাইদহ : মহেশপুর সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধভাবে ভারত থেকে দেশে ফিরে কোয়ারেন্টাইনে থাকা তিনজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

করোনা আক্রান্ত তিনজন হলেন- মোক্তার হোসেন, রফিকুল ইসলাম ও রকেট হোসেন। তাদের বাড়ি নাটোরের সিংড়া উপজেলা ও বরিশাল জেলায়।

শুক্রবার (১৪ মে) কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ল্যাব থেকে এ ফলাফল পাঠানো হয়। তবে তাদের দেহে শনাক্ত করোনাভাইরাস ভারতীয় ধরনের কি না তা পরীক্ষার জন্য নমুনা ঢাকার আইইডিসিআরে পাঠানো হবে।

ঝিনাইদহ সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম জানান, করোনা শনাক্ত হওয়া তিনজনকে সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে রাখা হয়েছে। তাদের শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে বলে জানান তিনি।

যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে আসা ১৬৭ জনকে ঝিনাইদহের প্রাথমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ও এইড ফাউন্ডেশনের আবাসিক ভবনে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। আর মহেশপুর সীমান্ত এলাকা দিয়ে গত ১০ মে অবৈধভাবে আসা ২৮ জনকে জেলা শহরের আজাদ রেস্ট হাউজে রাখা হয়েছে।

এদিকে, সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আজাদ রেস্ট হাউজের কোয়ারেন্টাইন থেকে করোনা আক্রান্ত রফিকুল ইসলামসহ দুইজন পালিয়ে যায়। এরপরই জেলাশহর থেকে সদর থানা পুলিশ তাকে আটক করে। পরে রফিকুল ইসলামকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আর পালিয়ে যাওয়া সাগর হোসেনকে আটকের পর আবার কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। তিনি করোনা আক্রান্ত নন।