ধর্ষণের শিকার সেই কিশোরী ওসিসিতে

রবিবার, মে ২, ২০২১

আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর): ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় গোসল করতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হওয়া সেই কিশোরীকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) স্থানান্তর করা হয়েছে। রবিবার বিকাল ৩টার দিকে ওই কিশোরীর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল থাকায় তাকে হাসপাতালের গাইনি বিভাগ থেকে ওসিসিতে স্থানান্তর করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল হাসপাতালের গাইনি বিভাগের প্রধান দিলরুবা জেবা বলেন, ‘ওই কিশোরীকে মুমূর্ষু অবস্থায় এ হাসপাতালে আনা হয়। পরে তার অস্ত্রোপচার ও দুই ব্যাগ রক্ত দেওয়া হয়। তবে তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল থাকায় ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) স্থানান্তর করা হয়েছে।’

এর আগে এ ঘটনায় শনিবার ওই কিশোরীর মামা আলফাডাঙ্গা থানায় মো. সুমন মোল্যা (২৫) নামে এক যুবককে একমাত্র আসামি করে ধর্ষণ মামলা করেছেন। সুমন মোল্যা উপজেলার সদর ইউনিয়নের জাটিগ্রামের শের আলী মোল্যার ছেলে। তিনি বিবাহিত এবং দুই সন্তানের বাবা। সুমন মোল্লা একজন কৃষক।

এ বিষয়ে আলফাডাঙ্গা থানার ওসি ওয়াহিদুজ্জামান জানান, ‘অভিযুক্ত আসামিকে আটকের জোর তৎপরতা চালানো হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, উপজেলার সদর ইউনিয়নের জাটিগ্রামে ওই কিশোরী তার মামা বাড়ি থেকে পড়ালেখা করে। গত শুক্রবার দুপুরে প্রতিদিনের মতো বাড়ির পাশে একটি পুকুরে গোসল করতে গেলে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে অভিযুক্ত সুমন মোল্যা তাকে পেছন থেকে এসে গামছা দিয়ে মুখ চেপে ধরে পাশের একটি ঘাস খেতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। পরে ভুক্তভোগী বাড়ি গিয়ে পরিবারকে বিষয়টি খুলে বলে। এসময় তার অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে পরিবারের লোকজন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।