যুক্তরাষ্ট্রের ‘ডু নট ট্র্যাভেল’র তালিকায় বাংলাদেশ

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২২, ২০২১

ঢাকা : করোনা ভাইরাসের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের আরোপিত ‘ডু নট ট্র্যাভেল’র খড়্গ পড়েছে বাংলাদেশে। মার্কিনিদের অন্তত ১১৬টি দেশে ভ্রমণ থেকে বিরত থাকার জন্য যে তালিকা করা হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ। যদিও দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক ভ্রমণ নির্দেশিকার পূর্ণ হালনাগাদের তালিকা প্রকাশ করা হয়নি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, বাংলাদেশসহ প্রায় ১১৬টি দেশে ‘ভ্রমণ থেকে বিরত থাকুন’ তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। কবে নাগাদ হালনাগাদ করা পূর্ণ তালিকা প্রকাশ করা হবে তা জানাতে রাজি হয়নি দেশটির মন্ত্রণালয়। গত সোমবার এ তালিকার কথা জানানো হয়েছিল।

ভ্রমণে সর্বোচ্চ সতর্কতা সরূপ এ তালিকা করা হয়। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছিল, বিশ্বের ৮০ শতাংশ দেশই এ তালিকায় থাকবে। ওই তালিকায় যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফ্রান্স, ইসরায়েল, মেক্সিকো, জার্মানি, ভারত, পাকিস্তান, মালদ্বীপ, আফগানিস্তান, ফিনল্যান্ড, মিসর, বেলজিয়াম, তুরস্ক, ইতালি, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড ও স্পেনও আছে। এ দেশগুলোসহ আরও কিছু রাষ্ট্রকে করোনা ভাইরাসের অতি উচ্চ সংক্রমণের দেশ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

নেপাল, চীন ও জাপানের মতো কয়েকটি দেশ তৃতীয় পর্যায়ের ‘ভ্রমণ পুনর্বিবেচনা করুন’ তালিকায় রয়েছে। শ্রীলঙ্কা ও ভুটানকে যথাক্রমে দ্বিতীয় ও প্রথম পর্যায়ের ভ্রমণ সতর্কতার তালিকায় রাখা হয়েছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে চলায় ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের বেশিরভাগ নাগরিককে ইউরোপের অধিকাংশ দেশে ভ্রমণ না করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ইউরোপ, চীন, ব্রাজিল, ইরান ও সাউথ আফ্রিকায় সম্প্রতি ভ্রমণ করেছেন, মার্কিন নাগরিক নন এমন ব্যক্তিদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশেও নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রেখেছে ওয়াশিংটন।

গত মঙ্গলবার পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের এই ‘ডু নট ট্র্যাভেল’র তালিকায় ৩৪টি দেশ ছিল। করোনা সংক্রমণ বাজে পরিস্থিতি সৃষ্টি করায় এবার সেটি ১৫০টিরও বেশি দেশকে চতুর্থ পর্যায়ের ভ্রমণ সতর্কতার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার কথা বিবেচনা করছে তারা।