করোনা: সরকারি হাসপাতালে নতুন রোগীর চাপ কম, আইসিইউ সঙ্কট

বুধবার, এপ্রিল ২১, ২০২১

ঢাকা : রাজধানীর সরকারি হাসপাতালগুলোতে করোনার নতুন রোগীর চাপ কম। তবে, গুরুতর রোগীর সংখ্যা বেশি। তাই জায়গা নেই আইসিইউতে। প্রতিদিন নতুন আইসিইউ শয্যা যুক্ত হলেও সামাল দেওয়া যাচ্ছে না রোগীর চাপ।

বুধবার সকাল। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে তৈরি ডিএনসিসি ডেডিকেটেড কোভিড নাইন্টিন হাসপাতালের জরুরি বিভাগ বেশ ফাঁকা।

দুপুর পর্যন্ত রোগী এসেছে মোটে ১৮ জন। তবে তাদের মধ্যে কয়েকজন গুরুতর। পাঠাতে হয়েছে আইসিইউতে। রোগীর চাপ সামলাতে ৫০ শয্যার আইসিইউ বেড়ে হয়েছে ৭৫টি।

ডিএনসিসি ডেডিকেটেড কোভিড-১৯ হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন বলেন, আমাদের এখানে ১২৪ জনের মত ভর্তি হয়েছে এরমধ্যে ৭৫ জন আইসিইউ’তে এবং ৪৯ জন ইমারজেন্সি ওয়ার্ডে আছে। দুইদিনেই আমাদের আইসিইউ এর সংখ্যা ৭৫ হয়ে গেছে এভাবে চলতে থাকলে কিছুদিনের মধ্যেই আইসিইউ এর বেড আর খালি রাখা সম্ভব হবে না।

মুগদা জেনারেল হাসপাতালের চিত্রও একই রকম। গেল ১৫ই এপ্রিল থেকে ২১শে এপ্রিল পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে কোভিড রোগীর সংখ্যা কমেছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, সাধারণ রোগীর সংখ্যা কমলেও বাড়ছে গুরুতর করোনা রোগী।

মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পরিচালক অসীম কুমার নাথ বলেন, নিবিড় পরিচর্যার জন্য যেসব সুযোগ সুবিধা প্রয়োজন যেমন আইসিইউ বেড সেখানে কিন্তু সব সময় রোগী ভর্তি থাকছে। এটা দ্বারা প্রমাণিত হয় আমাদের সংক্রমণ কমে যাচ্ছে কিন্তু সিরিয়াস রোগীর চাহিদা আগের চেয়ে বাড়ছে।

এক্ষেত্রে, করোনা শনাক্তের রোগীদের প্রাথমিক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তির পরামর্শ, চিকিৎসকদের।