প্রেসক্লাবে জড়ো হচ্ছেন যুবদল নেতাকর্মীরা, কঠোর অবস্থানে পুলিশ

বৃহস্পতিবার, মার্চ ৪, ২০২১

ঢাকা : ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি, লেখক মুশতাক আহমেদের কারাগারে মৃত্যুর ও জিয়াউর রহমানের রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ আজ।

বৃহস্পতিবার (০৪ মার্চ) বেলা ১১টায় এ প্রতিবাদ সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

প্রতিবাদ সমাবেশকে কেন্দ্র করে এরইমধ্যে দলে দলে ছোট ছোট মিছিল নিয়ে ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় থেকে যুবদল নেতারা প্রেসক্লাবের সামনে জড়ো হচ্ছেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে নেতাকর্মীদের উপস্থিতিও বাড়ছে।

এদিকে যুবদলের প্রতিবাদ সমাবেশ ঘিরে প্রেসক্লাব ও আশপাশের এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ইতোমধ্যে যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোর্তাজুল করিম বাদরু প্রমুখ সমাবেশস্থলে এসে উপস্থিত হয়েছেন।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল ও লেখক মুশতাক আহমেদের কারাগারে মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে গেল রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে ছাত্রদল। সমাবেশ ঘিরে সকাল থেকেই প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা জড়ো হতে থাকেন। বেলা সোয়া ১১টার দিকে জমায়েত শুরুর আগেই পুলিশ লাঠিচার্জ করে ও কাঁদুনে গ্যাস ছুঁড়ে নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

এক পর্যায়ে নেতাকর্মীরাও পুলিশের ওপর পাল্টা হামলা চালায়। দুপক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে পুলিশ ও নেতাকর্মীসহ শতাধিক লোক আহত হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ছাত্রদলের বেশ কয়েকজনকে আটক করে। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে ছাত্রদলের আরও ৭ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়।

ওই সংঘর্ষের ঘটনায় ওই রাতেই ছাত্রদল, যুবদল ও বিএনপির ৪৭ জন নেতাকর্মীকে আসামি করে শাহবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

মামলায় এজাহারনামীয় ৪৭ জন নেতাকর্মী ও অজ্ঞাতনামা ২০০/২৫০ জনকে আসামি করা হয়। এখন পর্যন্ত সংঘর্ষের ঘটনায় ১২ জনকে গ্রেফতার দেখিয়েছে পুলিশ। মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে (পুলিশ অ্যাসল্ট) হত্যাচেষ্টা ও হামলা ও ভাঙচুর চালানো।

গতকাল বুধবার হাইকোর্ট ওই মামলায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল ও যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুসহ ৬ জনকে আগাম জামিন দিয়েছেন।