ভালোবাসার কোন ধাপে আছেন আপনি?

সোমবার, জানুয়ারি ২৫, ২০২১

লাইফস্টাইল ডেস্ক : হুট করেই কি ভালোবাসা হয়? এক পা দু’পা করে ধীরে ধীরে ভালোবাসার মানুষটির কাছে এগিয়ে যেতে হয়। ছোট ছোট ধাপ পার করার পরেই ভালোবাসা পরিণতি পায়। আবার অনেক সময় পরিণতি পাওয়ার আগেই ঝরে যায়। ভালোবাসার এমন ধাপ আছে সাতটি। সম্পর্কের ক্ষেত্রে সপ্তম ধাপটিই চূড়ান্ত পরিণতি। মিলিয়ে দেখুন তো কোন ধাপে আছেন আপনি।

ক্রাশ
প্রথম দেখায় ভালো লাগার ধাপ এটি। একদম প্রথম ধাপ। এই ধাপের মাধ্যমেই শুরু হতে পারে একটি নিখাদ সম্পর্ক। আবার নাও হতে পারে। কাউকে দূর থেকে দেখে পছন্দ হয় এবং তার উপস্থিতি ভীষণ ভালো লাগে এই ধাপে। কিন্তু সংকোচের কারণে যোগাযোগ করা কিংবা সরাসরি কথা বলা হয়ে ওঠে না।

যোগাযোগ
ভালোলাগার মানুষটির সঙ্গে যোগাযোগ করার ইচ্ছা জাগে প্রবল ভাবে। কোনো একটা অজুহাতে তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। কথাবার্তা বলা হয়। অনেক ভয় এবং অস্বস্তি থাকে মনে, কিন্তু ভালো লাগার মানুষটিকে পটানোর চেষ্টা চলতে থাকে নানা ভাবে। কেউ কেউ এই ধাপে বেশিই এগিয়ে যান হুট করে। ফলে সম্পর্ক ভালো হওয়ার বদলে উল্টো খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

একে অপরকে চেনা
এই ধাপটি খুব মিষ্টি। যোগাযোগের পরিমাণ অনেক বেড়ে যায়। সারাক্ষণই চ্যাটিং অথবা ফোনে কথা বলা শুরু হয়। বেশ বন্ধুত্ব পূর্ণ আচরণ থাকে এই ধাপে। তবে সারাদিন কে কী করছেন, কী খাচ্ছেন, কোথায় যাচ্ছেন সবই বলা শুরু করেন একে অপরকে। ফোন বা ম্যাসেজের উত্তর না পেলে অভিমান হয়। কিছুটা অধিকার জন্মায় পরস্পরের উপর। এছাড়াও প্রিয় মানুষটির পছন্দ-অপছন্দগুলো জানার সুযোগ হয় এই ধাপে। ভালোবাসা মনে থাকে কিন্তু প্রকাশ করার সাহস হয় না।

ভালোবাসার প্রকাশ
ভালোবাসার সবগুলো ধাপের মধ্যে সবচাইতে সুন্দর ধাপ এটি। দুজনেই বুঝে ফেলেন, এঁকে অপরকে ভালবাসতে শুরু করে দিয়েছেন। মুখে প্রকাশ করে ফেলেন হুট করে। মুখে প্রকাশ না হলেও আচরণে প্রকাশ পেয়ে যায়। ভীষণ আকর্ষণ অনুভূত হয় পরস্পরের প্রতি। এই ধাপেই প্রথম হাত ধরা, চুম্বন কিংবা আলিঙ্গনের অভিজ্ঞতা হয় সাধারণত।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা
ভালোবাসার প্রকাশ হওয়ার পরে শুরু হয় ভবিষ্যতের পরিকল্পনা। দুজনেই বেশ সাবলীল, তাই বিয়ে নিয়ে ভাবতে আর কোনো বাঁধা থাকে না। অনেক প্রতিজ্ঞা করা হয় একে অপরের কাছে।

বিয়ে
অবশেষে সম্পর্ক পরিণতি পায়। দুইজনের পরিবারের মধ্যে পরিচিতি হয়। ধর্মীয় এবং আইনগত ভাবে সম্পর্ক একটা নাম পায়। একে অপরের সঙ্গে সারা জীবন কাটিয়ে দেয়ার জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয় একটি জুটি।

দাম্পত্য
প্রেম আর দাম্পত্য নাকি এক নয়- এমন কথা প্রচলিত আছে। বিয়ের পরে একেবারেই নতুন ভাবে চেনা যায় বহুদিনের পরিচিত মানুষটি। অনেক বিষয় নিয়ে ঝামেলা হয়, মানিয়ে চলতে হয়। অনেক অভ্যাস পছন্দ হয় না। মিষ্টি প্রেমিকাই হয়ে ওঠেন খিটমিটে স্ত্রী। কিংবা রোমান্টিক প্রেমিক হয়ে ওঠেন নিরস স্বামী। সব মিলিয়ে প্রত্যাশা আর বাস্তব মেলাতে হিমশিম খেতে হয় অনেক যুগলকেই। কিন্তু এটাই একটি সম্পর্কের আসল পরীক্ষা। আর এই পরীক্ষায় টিকে গেলেই দাম্পত্য দীর্ঘস্থায়ী এবং সুন্দর হয়।