অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পি কে হালদারের ৩৩ সহযোগীর বিরুদ্ধে ৫ মামলা

সোমবার, জানুয়ারি ২৫, ২০২১

ঢাকা : অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পি কে হালদারের ৩৩ সহযোগীর বিরুদ্ধে ৫ টি মামলা করা হয়েছে। ক্ষমতার অপব্যবহার করে বিভিন্ন কোম্পানি থেকে এসব ব্যক্তি মোট ৩৫০ কোটি ৯৯ লাখ টাকা অবৈধভাবে আত্মসাৎ করেছেন বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে।

আজ সোমবার রাজধানীর সেগুনবাগিচাস্থ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)’র প্রধান কার্যালয়ের সামনে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান দুদক’র সচিব ড. মু আনোয়ার হোসেন হাওলাদার। গত রোববার পি কে হালদারের দুই সহযোগীকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর রোববার একটি এবং সোমবার আরও চারটিসহ মোট পাঁচটি মামলা করা হয়েছে। এসব মামলায় পি কে হালদারের আত্মীয়, ঘনিষ্ঠজনসহ ৩৩ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলাগুলোতে অভিযোগে করা হয়েছে, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা এবং বোর্ডের সদস্যরা অসৎ উদ্দেশ্যে ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্রতারণার মাধ্যমে ভুয়া ও কাগুজে প্রতিষ্ঠানের নামে টাকা আত্মসাৎ ও মানিলন্ডারিং করেছেন। এর মধ্যে আনান কেমিক্যাল লিমিটেডের নামে ৭০ কোটি ৮২ লাখ টাকা, সুখাদা প্রোপার্টিজ লিমিটেডের নামে ৬৯ কোটি ৮০ লাখ টাকা, মেসার্স বর্ণ’র নামে ৬৬ কোটি ৯৮ লাখ টাকা, রাহমান কেমিক্যালস লিমিটেডের নামে ৫৪ কোটি ৫৫ লাখ টাকা, মুন এন্টারপ্রাইজের নামে ৮৩ কোটি ৮৪ লাখ টাকা মিলিয়ে পাঁচটি ঋণ জালিয়াতির ঘটনায় মোট ৩৫০ কোটি ৯৯ লাখ টাকা আত্মসাৎ ও মানিলন্ডারিং হয়েছে।