ভারতে একদিনে ১ লাখ ৯১ হাজার করোনার টিকা প্রয়োগ

রবিবার, জানুয়ারি ১৭, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিশ্বের বৃহত্তম গণটিকাকরণ কর্মসূচির সূচনা করছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রথমদিনে দেশটিতে ১ লাখ ৬৫ হাজার মানুষ করোনা টিকা পেয়েছেন।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) ভারতে মোট ১ লাখ ৬৫ হাজার ৭১৪ জনকে করোনার প্রতিষেধক টিকা দেওয়া হয়। দেশটিতে মোট ৩ হাজার ৬টি কেন্দ্রে টিকাকরণের কর্মসূচি নেওয়া হয়েছিল। প্রতি কেন্দ্রে ১০০ জনকে করোনার টিকা দেওয়া হয়।

এর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে এদিন মোট ১৫ হাজার ৮৮৩ জন মানুষ প্রতিষেধক টিকা নিয়েছেন। এর মধ্যে কলকাতায় ভ্যাকসিন বন্টন করা হয়েছে ১ হাজার ৭৩৭ জনকে। পশ্চিমবঙ্গে মোট ২০৭টি কেন্দ্রে দিনভর করোনা টিকাকরণের কর্মসূচি চলে।

প্রথম ধাপে ভারতে মোট ৩ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। এরমধ্যে যারা করোনার বিরুদ্ধে ফ্রন্ট লাইনে (স্বাস্থ্যকর্মী, ডাক্তার, নার্স ইত্যাদি) লড়াই করছেন তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে এমন তথ্যই দেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, প্রথমদিন ভ্যাকসিন নেওয়ার পর এখনও পর্যন্ত কাউকে হাসপাতালে ভর্তির খবর পাওয়া যায়নি বা শারীরিক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার খবর মেলেনি।

করোনা টিকাকরণ সম্পন্ন হওয়ার পর দেশটির সব রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির স্বাস্থ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন। সফল সূচনার জন্য স্বাস্থ্যমন্ত্রীদের অভিনন্দনও জানান তিনি।

এর আগে সকালে গণটিকাকরণ কর্মসূচির সূচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘ভ্যাকসিন তৈরি হতে অনেক সময় লেগেছে। দেশের বৈজ্ঞানীরা দিনরাত পরিশ্রম করেছেন। ওদের প্রশংসা প্রাপ্য। প্রথম পর্যায়ে ৩ কোটি স্বাস্থ্যকর্মীকে ভারত সরকার বিনামূল্যে টিকা দেবে। দ্বিতীয় দফায় ৩০ কোটি মানুষ টিকা পাবেন। ধীরে ধীরে দেশের সবাইকে টিকা দেওয়া হবে।’