নৌকাকে জয়ী করতে সাংসদের প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ, স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীদের মারধর

শনিবার, জানুয়ারি ১৬, ২০২১

বরগুনা : বরগুনার পাথরঘাটা পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী আনোয়ার হোসেনকে বিজয়ী করতে স্থানীয় সাংসদ শওকত হাসানুর রহমান রিমন কঠোর হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন সাধারণ ভোটারদের-এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এছাড়াও স্বতন্ত্রপ্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল এর কর্মীদের উপর হামলা ও মারধর করার অভিযোগ উঠেছে সরকারদলীয় নৌকা প্রার্থী আনোয়ার আকনের বিরুদ্ধে। তার নাতি-ভাইসহ আত্মীয়-স্বজনরা এই মারধরের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত রয়েছেন।

এমনকি সাংসদ নিজেই পাথরঘাটা নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ ভোটারদের পৌরসভার পাশের এলাকায় ডেকে নিয়ে মারধরের হুমকি দিয়ে আসছেন বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় ধারণ ভোটাররা।

পৌর এলাকার ৯ নম্বর ওয়ার্ড এর মারধরের শিকার হওয়া বাদশা মিয়া জানান, গত বৃহস্পতিবার এমপি শওকত হাসানুর রহমান রিমন আমাকে সাহেব আমরাতলা এলাকায় আমিসহ আমাদের কয়েকজন শ্রমিক ঠেকে নিয়ে বলেছেন, যেভাবেই হউক সরকার দলীয় নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে হবে।

এছাড়া অন্য কারো নির্বাচন করা যাবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। এর পরের দিন শুক্রবার আমাকে আনোয়ার আকনের নাতি চায়ের দোকানে বসে মারধর করেছে এবং মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে।

এছাড়াও ৯নম্বর ওয়ার্ডের মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সাধারণ সম্পাদক মাতব্বর রুবেলের বাবা শিশু মাতুব্বরের, নৌকার প্রার্থী আনোয়ার আকনের নাতি সুমন ও নুরু মিস্ত্রীর হাতে রবিবার পৌরসভার ব্রীজের নিচে মারধরের শিকার হয়েছে।

এ বিষয়ে পাথরঘাটা পৌরসভা ২নম্বর ওয়ার্ডের নৌকার প্রার্থী আনোয়ার আকনের লোকজনের হামলার শিকার হওয়া উজ্জ্বল বিশ্বাস অশ্রুসিক্ত মুখে বলেন, আমি একজন শ্রমিক নেতা। নির্বাচন করতে এসে আমি এখন ঘর ছাড়া। আমার ঘরবাড়ি ভাঙচুর করে এবং আমাকে মেরে ফেলার জন্য খুঁজে বেড়াচ্ছে আনোয়ারা কোন লোকজন। আমি আমার জীবনের নিরাপত্তা চাই প্রশাসনের কাছে।

এ বিষয়ে স্বতেন্ত্র প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল বলেন,আমার লোকজনদেরকে ঘর থেকে বের হতে দিচ্ছে না বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার আকনের লোকজন।

এবং তার নাতি সুমন আমার লোকজনদেরকে রাস্তাঘাটে বিরক্ত করে এবং কয়েকজন কর্মীকে মারধরও করেছে। আমি মাকরা পাওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত কোনো প্রচারণার কাজ করতে পারতেছি না তার লোকজন এর কারণে। বিষয়টি আমি আইনশৃঙ্খলা মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপারের কাছেও জানিয়েছি তিনি আমাকে শতবাক আশ্বাস দিয়েছেন।

এ বিষয়ে বরগুনা-২ (বামনা, বেতাগী, পাথরঘাটা) সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য শওকত হাসানুর রহমান রিমনের বক্তব্য জানতে তার মুঠোফোনে ফোন দিলেও তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এসব অভিযোগের বিপরীতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার আকন বলেন, আমি ও আমার নাতি সুমনের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ তারা করেছেন সব মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। কারণ আমার নাতিকে বাসা থেকেই বের হতে দেই না।