আইনের শাসন বড্ড দুর্বল হয়ে গেছে: ড. মিজানুর রহমান

সোমবার, অক্টোবর ২৬, ২০২০

ঢাকা : পুলিশের নির্যাতনে সিলেটে রায়হান হত্যা প্রসঙ্গে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান বলেছেন, আমাদের দেশে সুশাসনের বড্ড অভাব হয়ে গেছে। আইনের শাসন আমাদের বড্ড দুর্বল হয়ে গেছে এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছ থেকে যে প্রত্যাশিত আচরণ, সাহায্য, সহযোগিতা এবং তাদের যে দায়িত্ব সম্পাদন সে ব্যাপারে দারুণ রকমের ঘাটতি দেখা দিয়েছে।

তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভেতর এক ধরণের দায়মুক্তির একটা ভাব যেন তাদেরকে গ্রাস করে ফেলেছে। যে তারা যেমন ইচ্ছা তেমন করতে পারবেন এবং তাদেরকে কোন কিছু স্পর্শ করবেন না।

সম্প্রতি একটি বেসরকারি টেলিভিশনের এক টকশো অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. মিজানুর রহমান বলেন, যখন তাদেরকে স্পর্শ করতে চায়, যেটা কক্সবাজার এর ঘটনা সিনহা হত্যার পরে আমরা দেখলাম। তারা কিন্তু অপেক্ষায় ছিলেন কখন আবার দ্বিতীয় আরেকটি নতুন ঘটনার জন্ম দেবে। যেটি ওসি প্রদীপকে একদমই ঘটনার অন্তরালে নিয়ে যাবে এবং নতুন নতুন সময়সীমায় তখন আমরা আবার আলোচনা শুরু করব। এটি আমাদের জন্য একটি কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। এরকমভাবে কিন্তু আমাদের সম্পূর্ণ সার্বিক জীবনকে অতিবাহিত করছি। কেন এটা হচ্ছে?

তিনি বলেন, আমি একটা কথা বলি যদি আপনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে তাদের আইন অনুসারে এবং তাদের চেইন অব কমান্ড মেইনটেইন করে কাজ করতে না দেন। তাদের যে প্রধানতম দায়িত্ব ন্যাস্ত করা হয়েছে। সেই দায়িত্ব থেকে অন্য কোন কাজে যদি আপনার সাময়িক সুবিধার জন্য ব্যবহার করে থাকেন তাহলে সেই সুবিধা কিন্তু আইন শৃঙ্খলা বাহিনী গ্রহণ করবেই। এটা যে কোন মানুষই গ্রহণ করবে এটা স্বাভাবিক ব্যাপার।

তিনি বলেন, আমার মাননীয় উপাচার্য যদি আমাকে কোন একটা কাজে ব্যবহার করেন, যেটি আমার শিক্ষক হিসেবে করার কথা নয়। তার ব্যক্তিগত স্বার্থে হয়তো কাজে লাগতে পারে, আমি যদি সেই কাজটি করে থাকি তার কথা শুনে। পরবর্তীতে আমি তার কাছ থেকে কোন সুবিধা আদায় করবো এটাই তো স্বাভাবিক। সেই স্বাভাবিক কাজটি আজকে বাংলাদেশে আমাদের পুলিশ বাহিনী এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী করে চলেছে। আমার মনে হয় না এর থেকে আর বেশি কিছু খোলা ভাবে বলার প্রয়োজন রয়েছে।