নোয়াখালীতে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ, যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

বুধবার, অক্টোবর ২১, ২০২০

নোয়াখালী : নোয়াখালী চাটখিলে শরিফ বাহিনীর প্রধান শরিফের বিরুদ্ধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ বুধবার ভোর ৫টায় চাটখিলের নোয়াখোলা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। শরিফ নোয়াখোলা ইউনিয়ন (পশ্চিম) যুবলীগ সভাপতি। আজ দুপুর ২টা ১০ মিনিটের দিকে শরিফকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অভিযুক্ত শরিফ ওই প্রবাসীর বাড়িতে প্রবেশ করে তার স্ত্রীকে ধর্ষণ করেন বলে জানা গেছে। ভুক্তভোগী নারী জানান, আজ ভোর ৫টার সময় শরিফ ঘরের দরজা কৌশলে ভেঙে আমাদের ঘরে ঢুকে। আমি চিৎকার শুরু করলে আমার সন্তানরা জেগে উঠে। পরে শরিফ হুমকি দেয় আমাকে শেষ করে দেবে, আমার দুই সন্তানকে শেষ করে দেবে। পরে শরিফ আমাকে ঘরের সামনে কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করে।

ভুক্তভোগী নারী কান্নাজড়িত কণ্ঠে আরও বলেন, শরিফ মোবাইলে আমার ছবি কিংবা ভিডিও ধারণ করেছিল। পরে আমার মোবাইল নাম্বারও নেয়। মোবাইল নাম্বার সঠিক কী না সেটাও চেক করে। যাওয়ার সময় শরিফ আমাকে হুমকি দিয়েছে কাউকে কিছু জানালে আমাকে, আমার দুই সন্তানকে এবং আমার পুরো গোষ্ঠীকে সে শেষ করে দেবে।

চাটখিল থানার ওসি (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) আনোয়ার হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।