ঘোড়াঘাট থানার ওসি প্রত্যাহার

শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২০

দিনাজপুর: ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবার ওপর হামলার ঘটনায় দিনাজপুর ঘোড়াঘাট থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিরুল ইসলামকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে তাকে প্রত্যাহার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ আনোয়ার হোসেন।

পুলিশ সুপার জানান, ওসি আমিরুল ইসলামকে প্রত্যাহার করে দিনাজপুর পুলিশ লাইনে আনা হয়েছে।

এ দিকে ইউএনও ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার ঘটনায় তার বড় ভাই শেখ ফরিদ উদ্দীনের করা মামলাটি ঘোড়াঘাট থানা থেকে স্থানান্তর করে দিনাজপুর ডিবি পুলিশে পাঠানো হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে দিনাজপুর ডিবি পুলিশের ওসি ইমাম জাফরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) রাত আড়াইটার দিকে ঘোড়াঘাটে সরকারি বাসভবনে ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার মুক্তিযোদ্ধা বাবা ওমর আলী শেখকে কুপিয়ে আহত করে দুর্বৃত্তরা। ওই রাতেই বাবা-মেয়েকে উদ্ধার করে ঘোড়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে বৃহস্পতিবার ভোরে তাদের রংপুর কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে নেয়ার পরই গুরুতর আহত ইউএনও ওয়াহিদাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়।

তবে ইউএনও’র অবস্থা দ্রুত অবনতি হলে তাকে জরুরি ভিত্তিতে হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় আনা হয়। ওয়াহিদা খানম এখন রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। একই হাসপাতালে তার বাবারও চিকিৎসা চলছে। ওয়াহিদার স্বামী রংপুরের পীরগঞ্জে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।