নুরুল ইসলাম বাবুলের অবদান মানুষ কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ রাখবে: বিএনপি

সোমবার, জুলাই ১৩, ২০২০

ঢাকা : দেশের অন্যতম বৃহৎ শিল্পগ্রুপ যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে বিএনপি।

বিএনপি মহাসচিব এক শোক বার্তায় বলেন, নুরুল ইসলাম শিল্পখাতে যেমন সফল ব্যক্তিত্ব, তেমনি নিজের প্রতিষ্ঠিত গণমাধ্যমের সাংবাদিকের স্বাধীনতার প্রতি সচেতন ছিলেন। কর্মক্ষেত্রে সততা ও নিষ্ঠার জন্য তিনি সর্বমহলে সুনাম অর্জন করেছেন। দেশের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক পত্রিকা যুগান্তর এবং বেসরকারি টিভি যমুনা টিভির প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন তিনি। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল ছিলেন নুরুল ইসলাম। তার মতো ব্যক্তির মৃত্যুতে দেশের অপূরনীয় ক্ষতি হয়ে গেল যা সহজে পূরণ হবার নয়। দেশ ও দশের জন্য তার অবদান মানুষ কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ রাখবে।

বিএনপি মহাসচিব মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যবর্গ, আত্মীয়স্বজন, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায় পৃথক শোকবার্তায় বলেন, নুরুল ইসলাম ছিলেন একজন আপোষহীন শিল্প উদ্যোক্তা। অন্যায়ের সঙ্গে তিনি কখনও আপস করেননি। তার প্রতিষ্ঠিত গণমাধ্যমেও তার প্রতিফলন দেখেছি। এ দেশের লাখ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছেন তিনি। তার অবদান জাতি চিরদিন মনে রাখবে।

সাবেক মন্ত্রী ও বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু এক শোকবার্তা বলেন, নুরুল ইসলামের সঙ্গে আমার ৪০ বছরের সম্পর্ক। তার মতো এমন অমায়িক এবং সফল শিল্প উদ্যোক্তা দেশে খুব কম রয়েছে। মুক্তিযুদ্ধ এবং যেকোন গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তার সাহসী ভূমিকা ছিল। শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান তিনি।

বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ও সাবেক মন্ত্রী মেজর (অব.) কামরুল ইসলাম এক শোক বার্তায় বলেন, তার মতো সৎ, সাহসী শিল্পপতি দেশে খুবই কম ছিল। তার মৃত্যুতে দেশ একজন ভালো উদ্যোক্তাকে হারালো।

শোক জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. আব্দুল মঈন খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, মো. শাহজাহান, আব্দুল আউয়াল মিন্টু, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব উন নবী খান সোহেল, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন,যুবদল সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, আকন কুদ্দুসুর রহমান, সহ দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন, অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা জহির উদ্দিন স্বপন, ইশরাক হোসেন, ঢাকা জেলার সভাপতি দেওয়ান মো. সালাউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক প্রমুখ।