আশুলিয়ায় চাঁদাবাজির অভিযোগে যুবলীগ কর্মী আটক

বৃহস্পতিবার, জুলাই ৯, ২০২০

জাহিন সিংহ, সাভার থেকে : সাভারের আশুলিয়ায় চাঁদাবাজির অভিযোগে সোহাগ মুন্সী নামের (২৬) এক কথিত যুবলীগের কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার রাতে আশুলিয়ার বাইপাইলের একটি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকায় অভিযান চালিয়ে বুধবার রাতে চাঁদাবাজির মামলায় সোহাগ মুন্সীকে আটক করা হয়। বর্তমানে তিনি আশুলিয়া থানা হেফাজতে রয়েছে। দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এলাকাবাসী জানায়, আটক যুবলীগ কর্মী সোহাগ মুন্সীর নামে চাঁদাবাজি, ধর্ষণসহ নানা অভিযোগে আশুলিয়া থানায় বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। নানা অপকর্মে জাড়িত থাকলেও যুবলীগের নাম ভাঙিয়ে এলাকায় দাপিয়ে বেড়ান সোহাগ।

আটক সোহাগ মুন্সী আশুলিয়া থানা যুবলীগের কর্মী দাবি করলেও আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহবায়ক কবির হোসেন সরকার তা অস্বীকার করে বলেন, সোহাগ যুবলীগের কর্মী বা সদস্য নন। যুবলীগে কোন চাঁদাবাজের যায়গা নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে আটক কথিত যুবলীগ কর্মী সোহাগ আশুলিয়া থানা যুবলীগের আহ্বায়ক কবির হোসেন সরকার ও যুগ্ম-আহ্বয়ক মঈনুল ইসলাম ভুইয়ার সাথে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ছবি তুলে মানুষকে ভয়ভিতি দেখিয়ে এলাকায় নানা অপকর্ম করে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। আটক সোহাগ মুন্সীর শস্তি দাবি করেছে এলাকাবাসী। তাকে আটক করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুদীপ কুমার দাস বলেন, চাঁদাবাজির আভিযোগে সোহাগ মুন্সীকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।