বিরাটকে মাত্র ২১ বার কাছে পেয়েছি, গোপন ফাঁস আনুশকার

রবিবার, জুলাই ৫, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক : দুজনই সেলিব্রেটি। দুজনই দুই জগতের মহাতারকা। তাইতো তাদের মিলনটাও এত সস্তা নয়। চাইলেই তারা কফিশপে বসতে পারেন না কিংবা একসঙ্গে বসে সাদা-কালো যুগের কোনও রোমান্টিক ছবি দেখতে পারেন না। কিন্তু তাই বলে ইচ্ছে যে হয় না তা কিন্তু নয়। সমস্যা একটাই- সময় সময় আর সময়। তারকাখ্যাতি তাদের দাম্পত্য মধুরতাকেও তাই একটা ফ্রেমে বন্দি করে দেয়। তাদেরকে অপেক্ষা করে থাকতে হয়- একজন আরেকজনকে কাছে পেতে।

বলা হচ্ছিল, বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা ও ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির কথা। এই দম্পতি বিয়ের প্রথম ৬ মাসে মাত্র ২১ বার একসঙ্গে একান্তে সময় কাটিয়েছেন।

এমন তথ্য খোদ আনুশকাই জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘বিয়ের পর প্রথম ৬ মাস বিরাটের সঙ্গে মাত্র ২১ দিন কাটিয়েছি। আমি দিন গুনে রাখতাম। আর তাই যেটুকু সময় যে কটা দিন আমাদের দেখা হয়েছে প্রতিটি মুহূর্তই ছিল আমার কাছে খুব দামি।’

আসলে বিয়ের পরপরই নিজ নিজ পেশায় দুজনই ব্যস্ত হয়ে পড়েন। দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে দক্ষিণ আফ্রিকায় কিংবা ইংল্যান্ডে চলে যেতে হয় বিরাটকে। আর ক্যামেরার সামনে বিভিন্ন চরিত্রে ডুবে থাকতে হয় আনুশকাকে। তাদের দেখা সাক্ষাত যেটুকু তা শুধু ভিডিও কলেই। কিংবা কখনও শর্ট ট্রিপ।

বিরাটের যেখানে খেলা থাকতো সেখানে হয়তো একটা দিনের জন্য আনুশকা চলে যেতেন কিংবা আনুশকার শুটিং স্পটে হুট করে কিছুটা সময়ের জন্য চলে আসতেন বিরাট। কিন্তু এভাবে দাম্পত্য জীবনটা কিছুই খুঁজে পাচ্ছিলেন না তারা।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকালে আনুশকা বলেন, ‘সকলেই ধরে নিতেন আমি বিরাটের সঙ্গে দেখা করতে আসি। কিংবা কখনও ও চলে যায় আমার সঙ্গে দেখা করতে। কিন্তু আমরা টানা কাজ করে যেভাবে। এভাবে ছাড়া আমাদের দেখা হওয়ার আর কোনও উপায়ও থাকতো না। বিয়ের প্রথম ৬ মাস মাত্র ২১ দিন একসাথে থেকেছি। আমি দিনগুলো গুনে রেখেছি। তাই ওকে কিছুটা কাছে পাওয়া আমার কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল।’

করোনা ভাইরাস মহামারি এই তারকা দম্পতিকে উপহার দিয়েছে অফুরান সময়। সেই সময়ে তারা আড্ডা, গল্প, খাওয়া, ক্রিকেট কিংবা ওয়েব সিরিজ দেখাসহ সবই করছেন। একজন আরেকজনের মনের অতলে উঁকি দিচ্ছেন যখন তখন।

তাদের এই প্রেম-ভালোবাসাকে জন্ম-জন্মান্তরের বলে বিশ্বাস করেন আনুশকা।