ক্লান্ত লাগছে বলে চড় খেলেন বলিউড কিং

শনিবার, জুলাই ৪, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক : ‘অনেক কাজ করেছি, ক্লান্ত লাগছে’, শাহরুখের মুখে একথা শুনে তাকে চড় মেরে ছিলেন সদ্য প্রয়াত সরোজ খান। শুক্রবার (৩ জুলাই) বরেণ্য কোরিওগ্রাফার সরোজ খানের মৃত্যুর পর উঠে এল সেদিনের ওই কথা। সরোজ খানের মৃত্যুর পর এদিন তাকে ‘প্রকৃত শিক্ষক’ বলেও মন্তব্য করেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ।

শাহরুখ খান ২০১৮ সালে টেলিগ্রাফকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, “আমার কেরিয়ারের শুরু দিকের কথা, সেটি আমার এখনও মনে আছে। আমি তখন তিনবেলাই কাজ করছি। সরোজজিকে বলেছিলাম, এত এত কাজ করে হাঁপিয়ে গেছি। তিনি সেকথা শুনে আমার গালে চড় মারেন (যদিও সেটা ভালোবেসে)। একইসঙ্গে বলেছিলেন, কখনও একথা বলবে না যে অনেক কাজ। আমি তাই নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। যত কাজই থাকুক চাপ লাগে না।”

শুক্রবার সরোজ খানের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে শাহরুখ লেখেন, “ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে আমার প্রথম এবং প্রকৃত শিক্ষক তিনি। নাচের মধ্যে ডুব দিয়ে কীভাবে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাটানো যায়, উনি শিখিয়েছিলেন। উনি যত্ন করে, ভালোবেসে শিখিয়েছেন। সরোজজি চিরকার আমার কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবেন। আল্লাহ ওনার আত্মাকে শান্তি দিন। আমাকে এভাবে গড়ে তোলার জন্য ধন্যবাদ।”

প্রসঙ্গত, অনেকেই হয়ত জানেননা যে দুহাত ছড়িয়ে শাহরুখের আইকনিক পোজ কিং খানকে শিখিয়েছিলেন সরোজ খান। যেটি শাহরুখের জন্য ট্রেডমার্ক হয়ে গেছে।

এই প্রসঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে সরোজ খান বলেন, “মরিশাসে যখন বাজিগরের শ্যুটিং হচ্ছে, তখন একটি দৃশ্যে শাহরুখকে আকাশের নিচে দাঁড়িয়ে দুহাত ছড়িয়ে দিতে দেখা যায়। তারপর জামা খুলে বুকে লেখা নামটি ও দেখায়। এই পোজ আমিই ওকে শিখিয়েছিলাম।”

প্রসঙ্গত, শুধু শাহরুখই নন, শ্রীদেবী, মাধুরী থেকে কাজল, ঐশ্বর্য সহ বলিউডের বহু তারকাই সরোজ খানের হাতে তৈরি। আর তাই তো তিনি আজ সকলের প্রিয় ‘মাস্টারজি’। এজন্যই তার মৃত্যুর খবরে গোটা বলিউডে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ঋষি কাপুর থেকে শুরু করে সবশেষ সুশান্ত রাজপুত সিংয়ের মৃত্যুর শোক কাটকে না কাটতেই সারোজ খানের মৃত্যুতে স্তব্দ গোটা বি-টাউন।

১৯৫০ সালে মাত্র ৩ বছর বয়সে শিশু নৃত্যশিল্পী হিসেবে বলিউডে যাত্রা শুরু করেছিলেন সারোজ খান। এরপর ১৯৮৬ সালে ‘নাগিন’, ১৯৮৭ সালে ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’, ১৯৮৮ সালে ‘তেজাব’, ১৯৮৯ সালে ‘চাঁদনী’ ও ১৯৯০ সালে ‘থানেদার’ ছবিতে কোরিওগ্রাফি সারোজ খানতে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যায়।

১৯৪৮ সালের ২২ নভেম্বর মুম্বাই শহরে সারোজ খানের জন্ম। মৃত্যুকালে তিনি স্বামী, এক ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য ভক্ত-গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।