চট্টগ্রামে ছাত্রদলকর্মী হত্যা মামলায় গ্রেফতার চার

শুক্রবার, জুলাই ৩, ২০২০

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে ছাত্রদল কর্মী মীর ছাদেক অভি খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরিও উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতার চারজনের মধ্যে তিনজন এজাহারনামীয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শুক্রবার (৩ জু্লাই) ভোরে নগরীর আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতাল এলাকা, পাহাড়তলী থানার মুরর্গী ফার্ম এলাকা, হালিশহর থানার বউ বাজারস্থ নীল কালু শাহ মাজার এলাকা ও হাটহাজারী থানার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মেকল গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করে ডবলমুরিং থানা পুলিশ। চারজন নিজেদের ছাত্রলীগ কর্মী বলে পরিচয় দেন। তবে তাদের পদ-পদবী জানা যায়নি।

গ্রেফতার চারজন হলো- মো. ইরফান প্রকাশ বাবু (২৩), মো. শাহরিয়ার ফারদিন প্রকাশ তুহিন (১৯), মো. ইয়াছিন আরাফাত প্রকাশ টিটু (৩০) ও মো. ইব্রাহিম মুন্না (২৬)। এদের মধ্যে পুলিশ তদন্তে সংশ্লিষ্টতা পেয়ে ইব্রাহিম মুন্নাকে গ্রেফতার করে। অন্য তিনজন এজাহারনামীয় আসামি।

ডবলমুরিং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জহির হোসেন ও উপ-পরিদর্শক (এসআই) অর্নব বড়ুয়া নেতৃত্বে একটি টিম অভিযান চালিয়ে আসামিদের গ্রেফতার করে।

ডবলমুরিং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জহির হোসেন বলেন, অভি মীর হত্যা মামলায় চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে তিনজন এজাহারনামীয় আসামি ও একজন তদন্তে প্রাপ্ত। তাদের কাছ থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরিটি উদ্ধার করা হয়েছে। পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদনসহ আসামিদের আদালতে প্রেরণ করা হবে।

এর আগে গত ১৫ জুন রাতে ডবলমুরিং থানার হাজীপাড়া মসজিদের পার্শ্বে ইমরানের রিকশার গ্যারেজের সামনে রাস্তার মোবাইল ফোনে উচ্ছস্বরে কথা বলাকে কেন্দ্র করে অভি মীরের সঙ্গে আসামিদের কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মো. ইরফান প্রকাশ বাবুসহ অন্যরা মিলে অভি মীরকে ছুরিকাঘাত করে।

এ ঘটনায় চিকিৎসাধীন অভি মীর বাদি হয়ে ১৮ জুন থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে ২৪ জুন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় অভি মীরের।