সাতক্ষীরায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ব্যবসায়ীসহ ২ জনের মৃত্যু

শনিবার, মে ৩০, ২০২০

সাতক্ষীরা : করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ বিভাগে চিকিৎসাধীন ব্যবসায়ীসহ ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. রফিকুল ইসলাম আজ শনিবার সকালে সাংবাদিকদের জানান, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টায় এক যুবক ও মধ্যরাতে এক ব্যবসায়ী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

মৃতরা হলেন- সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঘোনা ইউনিয়নের কাথন্ডা গ্রামের ফজর আলীর ছেলে কৃষক পিয়ার আলী (৩৫) ও তালা উপজেলার মাঝিয়াড়া গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে হার্ডওয়ার ব্যবসায়ী গাজী শহিদুল ইসলাম (৬৫)।

এদিকে, সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের মুখপাত্র ডা. জয়ন্ত সরকার বলেন, (২৮ মে) বৃহস্পতিবার সকালে তালা উপজেলা সদরের হার্ডওয়ার ব্যবসায়ী গাজী শহিদুল ইসলামকে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় শুক্রবার সকালে আইসিইউ বিভাগে ভর্তি করা হলে রাত ২ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মরা যান।

পিয়ার আলী চাষকাজ করতেন। জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে (২৭ মে) বুধবার দুপুর একটার দিকে পিয়ার আলীকে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনলে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

ডা. জয়ন্ত সরকার বলেন, শহিদুল ইসলামের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। তার বাড়ি লকডাউন করা হবে।

এদিকে, বুধবার কৃষক পিয়ার আলীর নমুনা সংগ্রহ করে খুলনা পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। এখনো তার রিপোর্ট আসেনি। তার বাড়ি ও শ্বশুর বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে ।

তিনি আরও জানান, সাতক্ষীরায় করোনার উপসর্গ নিয়ে এ পর্যন্ত মোট ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৭ জনের রিপোর্ট সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে এসে পৌঁছেছে। ৭টি রিপোর্টই নেগেটিভ এসেছে।