আবাসিক এলাকায় বিমান বিধ্বস্ত, যাত্রীসহ নিহত ১০৭

শুক্রবার, মে ২২, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানের করাচি শহরের জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ভেঙে পড়া প্লেনটিতে থাকা কেউ প্রাণে বাঁচে নি বলে জানিয়েছেন সেখানকার মেয়র। এ ঘটনায় ৯০ যাত্রী ও ৮ ক্রুসহ মোট ১০৭ জন নিহত হয়েছে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি।

শুক্রবার (২২ মে) সকালে ৯১ জন যাত্রীকে নিয়ে প্লেনটি লাহোর থেকে করাচি যাচ্ছিল। কর্মীসহ ফ্লাইটটিতে মোট ৯৯ জন মানুষ ছিলেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, এয়ারবাসটি বিধ্বস্ত হওয়ার আগে দুই থেকে তিনবার অবতরণের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। দুর্ঘটনার কয়েক ঘণ্টা পর করাচির মেয়র ওয়াসিম আখতার দুর্ঘটনাস্থল থেকে রয়টার্সকে ফোনে বলেন, ‘এই মুহূর্তে মনে হচ্ছে কেউ বেঁচে নেই। তবে নিশ্চিত নই।’

ফ্লাইটে ছিলেন দেশটির ২৪ নিউজের প্রোগ্রাম ডিরেক্টর আনসার নকভি এবং ব্যাংক অব পাঞ্জাবের প্রেসিডেন্ট জাফর মাসুদ। মাসুদের পরিবারের পক্ষ থেকে ডনকে জানানো হয়েছে, তিনি বেঁচে আছেন। স্থানীয় আরেকজন কর্মকর্তা বলেছেন, বিমান থেকে ১৩ জনের দেহ বিভিন্ন হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। আহত আরও ২৫-৩০ জনের অবস্থা গুরুতর। তারা মডেল কলোনির বাসিন্দা।