সংবাদ সম্মেলনে অস্ট্রেলিয়ার প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা

‘বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা শনাক্তের চেয়ে ৫-১০ গুণ বেশি’

শুক্রবার, এপ্রিল ৩, ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সংবাদ সম্মেলনে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন (ডানে) ও দেশটির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. ব্রেন্ডন মারফি। ছবি : দ্য ওয়েস্ট
অস্ট্রেলিয়ার প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. ব্রেন্ডন মারফি বলেছেন, বিশ্বব্যাপী কভিড-১৯ এ আক্রান্ত রোগী ১০ লাখ শনাক্ত হলেও প্রকৃত সংখ্যা এর চেয়ে ৫ থেকে ১০ গুণ বেশি হতে পারে। তিনি জানান যে, তিনি কেবল অস্ট্রেলিয়ান সংখ্যাই বিশ্বাস করছেন। কারণ বিশ্বের মধ্যে তাদের দেশেই সবচেয়ে বেশি পরীক্ষার হার রয়েছে।

সরকারি এক সংবাদ সম্মেলন ব্রেন্ডন মারফি বলেন, ‘আমি মনে করি চীন একটি কঠিন অবস্থায় রয়েছে, যদিও তারা শক্তহাতে কভিড-১৯ দমন করেছে এবং সংক্রমণ বন্ধ রাখতে পেরেছে। তাদের দেশের জনসংখ্যা অনেক এবং তারা স্পষ্টতই করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গটি ঠেকানোর জন্য খুব চেষ্টা করছে। আমি মনে করি তারা বেশ স্বচ্ছ। তবে কেবল আমাদের সংখ্যা সম্পর্কেই আমি আত্মবিশ্বাসী।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমেরিকায় পরীক্ষার বাইরে থাকা করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা শনাক্তদের সংখ্যার চেয়ে অনেক বেশি নয়- এ বিষয়ে আমি নিশ্চিতভাবেই আত্মবিশ্বাসী নই। কারণ পৃথিবীর আর কোনো দেশ আমাদের মতো পরীক্ষা করছে না। বিশ্বের কোনো দেশে জানুয়ারিতে উহানের বাইরে প্রকৃত কেস পাওয়া যায়নি এবং সে সম্পর্কে ধারণও ছিল না কারও। এ কারণে আমরা যা জানি তা নিয়ে কাজ করছি। আমরা আমাদের ক্ষেত্রে শীর্ষে রয়েছি। তবে আমাদের এখনও দীর্ঘ পথ বাকি আছে।’

ওই একই সংবাদ সম্মেলনে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেছেন, সরকারের পক্ষ থেকে করা মডেলিংয়ে দেখা যাচ্ছে ‘বর্তমান হারে’ অস্ট্রেলিয়া বিষয়টি ‘ভালোভাবে শনাক্ত করছে’।

তিনি বলেন, বর্তমানে আমদের যা যা করার তা তা করে চলেছি। আইসিইউ’র সক্ষমতা বাড়িয়ে তোলা এবং অতিরিক্ত ভেন্টিলেশন নিশ্চিতের কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। এবং এগুলো করতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কিন্তু কোনো নিশ্চয়তা নেই, কারণ ভাইরাস তার নিজস্ব ভাগ্য লিখছে।’দ্য গার্ডিয়ান