করোনাভাইরাসের রোগী তল্লাশির নামে শিশুকে ‘তুলে নিয়ে ধর্ষণ’

সোমবার, মার্চ ৩০, ২০২০

জামালপুর: জামালপুরে পুলিশ পরিচয়ে করোনাভাইরাসের রোগী তল্লাশির কথা বলে এক শিশুকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।এ ঘটনায় এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জামালপুর সদর থানার ওসি মো. সালেমুজ্জামান জানান, সদর উপজেলার মেষ্টা ইউনিয়নের জালালের চর রোহেলি গ্রামে শনিবার রাতের এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য রোববার দুপুরে ১৪ বছর বয়সী ওই মেয়েটিকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মেয়েটির বাবা সাংবাদিকদের বলেন, শনিবার রাত ৩টার দিকে করোনাভাইরাসের রোগী তল্লাশির কথা পুলিশ পরিচয়ে তাকে ঘরের দরজা খুলতে বলা হয়। তিনি দরজা খুললে ৫/৬ জন লোক তার কাছে পানি খেতে চায়। এ সময় তার মেয়ে পানি এনে দিলে তারা তার গলায় ছুড়ি ধরে মেয়েকে মারধর করে তুলে নিয়ে যায়।

“পরে অনেক খোঁজাখুজির পর রোববার সকালে স্থানীয় ঝিনাই নদীর ওপারে একটি জঙ্গল থেকে মেয়েকে উদ্ধার করা্র পর সে ধর্ষণের কথা জানায়।”

ওসি বলেন, এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা তিনজনের নামে মামলা দায়ের করলে মিজান (২০) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।