‘প্রধানমন্ত্রী ঠিক, এনআরসি নিয়ে কোনও কথা হয়নি’! ভোল পাল্টালেন অমিত শাহ

বুধবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৯

নিউজ ডেস্ক: সংবাদসংস্থা ANI-কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অমিত শাহ সোমবার বলেন, ‘এই বিষয়ে কোনও বিতর্কই হতে পারে না। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একদম ঠিক কথাই বলেছেন। সংসদে বা ক্যাবিনেটে কোথাও NRC নিয়ে কোনও আলোচনা হয়নি।’ এরপরই অমিত শাহের দুরকম কথা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। যদিও রবিবার নরেন্দ্র মোদীর দাবির পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন তোলেন, ‘দেশজুড়ে NRC নিয়ে দু রকম কথা শোনা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মুখে।’

সংসদে CAB বিল পাশ করানোর সময় দম্ভের সঙ্গে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ঘোষণা করেছিলেন, ‘তৈরি থাকুন। সারা দেশজুড়ে এনআরসি আসছে।’ তারপর CAB বিল পাশ হয়ে যায় সংসদের দুই কক্ষেই। দেশজুড়ে শুরু হয় বিক্ষোভ। একপ্রকার চাপের মুখে পড়ে গত রবিবার দিল্লির রামলীলা ময়দানের জনসভা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, ২০১৪ সালে তাঁর সরকার ক্ষমতায় আসার পর এনআরসি নিয়ে কোথাও কোনও আলোচনা হয়নি। এবার সেই সুরই শোনা গেল অমিত শাহের গলাতেও। যা দেখে অবাক রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

দেশজুড়ে নাগরিক আইন নিয়ে বিক্ষোভের মধ্যেই মঙ্গলবার ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টারের প্রস্তুতিতে সম্মতি জানিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন ক্যাবিনেট ২০২১ আদমসুমারির জন্য এবং NPR পরিমার্জনায় বিশেষ বরাদ্দ দেয়া হয়। সেই নিয়ে প্রশ্ন করা হলে অমিত শাহ সাফ বলেন, ‘এনপিআর আর এনআরসির কোনও সম্পর্ক নেই। এনপিআর জনসংখ্যার পরিসংখ্যান, আর এনআরসিতে নাগরিকত্বের প্রমাণ চাওয়া হয়। এনপিআরের তথ্য এনআরসিতে ব্যবহার করা হবে না।’

তবে এনপিআর যে তাঁদের সময়ে হচ্ছে না, সে কথাও উল্লেখ করেছেন অমিত শাহ। বলেন, ‘এনপিআর আমাদের সময় হচ্ছে না কেবল, ২০০৪ সালে কংগ্রেস সরকারের আমলেও হত। এখন জনগণনার সঙ্গে এনপিআর হচ্ছে।