শৈত্যপ্রবাহ ও বৃষ্টি নিয়ে নতুন খবর দিল আবহাওয়া অধিদপ্তর

সোমবার, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৯

ঢাকা : টানা পাঁচদিন পর আজ সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) ঢাকার আকাশে উঁকি দিয়েছে সূর্য। এতে সোমবার রাজধানীতে শীতের অনুভূতি কিছুটা কমে আসে। ঢাকার মতো তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায় উত্তরাঞ্চলেও। আপাতত বিদায় নিয়েছে শৈত্যপ্রবাহ। তবে শীতের তীব্রতা এখনই পুরোপুরি কমছে না। বুধবার বড়দিনে বা বৃহস্পতিবার দেশের বিভিন্ন জেলায় শুরু হতে পারে বৃষ্টি। বৃষ্টি থামলে বাড়বে শীতের তীব্রতা। তারপর নেমে আসতে পারে আরেকটি শৈত্যপ্রবাহ।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, ২৫ ডিসেম্বর খ্রিস্টানদের উৎসবের দিনে অথবা বৃহস্পতিবার দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে; যা অব্যাহত থাকতে পারে দুই থেকে আড়াই দিন। বৃষ্টির ফলে কুয়াশা কমে যেতে পারে। আর, বৃষ্টি থামলে বাড়তে পারে শীতের তীব্রতা।

আবহাওয়াবিদ আবদুল হামিদ সোমবার সন্ধ্যায় বলেন, ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে। বিভিন্ন জেলায় দিন ও রাতের তাপমাত্রার ব্যবধান বাড়ছে। ফলে সোমবার শীতের অনুভূতি শেষ পাঁচদিনের তুলনায় কম ছিল। মঙ্গলবার তাপমাত্রা আরেকটু বাড়তে পারে। তবে বুধবার বৃষ্টি শুরু হলে ফের শীতের তীব্রতা বাড়বে।

সোমবার সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে, ১০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রোববার যে পাঁচটি এলাকায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ ছিল, সেখানেও তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত। তবে দিনাজপুর, রাজারহাট, চুয়াডাঙ্গা, বরিশাল, জয়পুরহাটসহ কয়েকটি এলাকায় সোমবারও শীতের তীব্রতা ছিল। এতে সেখানকার জনজীবন স্থবির ছিল। এসব এলাকায় তাপমাত্রা আগের চেয়ে সামান্যই বেড়েছে।