বাংলাদেশ থেকে আর একজনও আসামে ঢুকতে পারবে না: মুখ্যমন্ত্রী

শনিবার, ডিসেম্বর ২১, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সুযোগে বাংলাদেশ থেকে নতুন করে একজনও আসামে প্রবেশ করতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সানোওয়াল। তবে যারা ইতোমধ্যেই ভারতে প্রবেশ করেছেন তারা নাগরিকত্বের জন্য আবেদনের সুযোগ পাবেন। শুক্রবার গৌহাটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব মন্তব্য করেন সর্বানন্দ।

পুরনো আইন অনুযায়ী, নাগরিকত্ব পেতে হলে ভারতে ১১ বছর থাকার বিধান ছিল। তবে সংশোধিত আইনে বলা হয়েছে, হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি ও খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীরা যদি প্রমাণ করতে পারেন তারা পাকিস্তান, আফগানিস্তান বা বাংলাদেশ থেকে এসেছেন, তাহলে তারা পাঁচ বছরেই নাগরিকত্ব পাবেন। আসামসহ দেশটির উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর আশঙ্কা এই আইনের কারণে বাংলাদেশ থেকে নতুন করে শরণার্থী ঢল নামবে।

তবে শুক্রবার গৌহাটিতে সংবাদ সম্মেলনে আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সানোয়াল বলেন, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সুযোগ নিয়ে বাংলাদেশ থেকে কাউকেই আর আসামে ঢোকার সুযোগ দেওয়া হবে না। তবে যারা ধর্মীয় কারণে নিপীড়নের শিকার হয়ে দশকের পর দশক ধরে বাংলাদেশ থেকে আসামে এসে বাস করছেন তারা নাগরিকত্বের আবেদন করতে পারবেন।

সর্বানন্দ সানোয়াল বলেন, ‘নাগরিকত্বের আবেদন জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া শেষ হলে আবেদনকারীদের সংখ্যা প্রকাশ করা হবে। আমাদের সামাজিক প্রক্রিয়ায় নাগরিকত্বের অনুমোদন কোনও প্রভাব ফেলবে না। আসাম চুক্তির ষষ্ঠ ধারা অসমিয়াদের সংস্কৃতি, ভাষা, পরিচয়, ঐতিহ্য সংরক্ষণের সাংবিধানিক, আইনি ও প্রশাসনিক অধিকার দিয়েছে।’

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ভুল তথ্যে প্ররোচিত না হওয়ার আহ্বান জানান আসামের মুখ্যমন্ত্রী।