এবারের আসরের সর্বোচ্চ ইনিংস মুশফিকের

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১৭, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক: পাকিস্তানি রিক্রুট শোয়েব মালিকের ৮৭ রানের ঝড়ের ওপর ভর করে চলতি আসরের সর্বোচ্চ ১৮৯ রানের সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছিল রাজশাহী। মালিকের ইনিংসটিও ছিলো চলতি আসরের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ সংগ্রহ। এত বড় সংগ্রহের পর জয়টাই ছিলো তাদের প্রত্যাশিত ফলাফল।

তবে খুলনা অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম সেটা হতে দিলেন না। চট্টগ্রামের ব্যাটিং স্বর্গে টস জিতে আগে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়ায় হয়েছিল সমালোচনা। যা রাজশাহীর ১৮৯ করার পর আরও বেড়ে যায় কয়েকগুণ। অবশ্য এসব সমালোচনা দেড় ঘণ্টার বেশি টিকতেই দেননি মুশফিক। নিজে খেলেছেন আসরের সর্বোচ্চ ৯৬ রানের ইনিংস, দলকে এনে দিয়েছেন দুর্দান্ত এক জয়।

প্রথমে দক্ষিণ আফ্রিকান তারকা রাইলি রুশোর সঙ্গে তৃতীয় উইকেটে ৭২ ও পরে দেশি ব্যাটসম্যান শামসুর রহমান শুভর সঙ্গে চতুর্থ উইকেটে ৬০ রানের কার্যকরী দুই জুটি। এ দুই ব্যাটসম্যানই সাজঘরে ফিরে গেলেও দলের জয় প্রায় নিশ্চিত করেই থেমেছেন মুশফিক। তবু ব্যক্তিগত পর্যায় থেকে একটা আক্ষেপ থাকতেই পারে মুশফিকের।

কেননা তিনি আউট হয়েছেন ৯৬ রান করে। আর মাত্র ৪টি রান হলেই হয়ে যেত টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। যার কথা তিনি বলেছিলেন আসর শুরুর আগে; কিন্তু এই সেঞ্চুরি পূরণ করতে গিয়েই ধরা পড়ে যান ওয়াইড লংঅনে দাঁড়ানো শোয়েব মালিকের হাতে। থেমে যায় তার ৯ চার ও ৪ ছক্কার মারে খেলা ৫১ বলে ৯৬ রানের ইনিংস।

এ ইনিংস খেলার পথে রাজশাহী অধিনায়ক রাসেলের সঙ্গে কঠিন এক পরীক্ষায়ই নামতে হয়েছিল মুশফিককে। খুলনার জয়ের জন্য যখন ২৪ বলে প্রয়োজন ৩৬ রান, তখন মাত্র ৪ রান খরচ করে যান রাসেল। সমীকরণ হয়ে যায় ১৮ বলে ৩২ রান। অধিনায়কের হাত ধরে ম্যাচে ফেরার আশা দেখে রাজশাহী।

তবে রাসেলের পরের ওভারেই ম্যাচ নিজেদের পকেটে ঢুকিয়ে নেন মুশফিক। ক্যারিবীয় অলরাউন্ডারের করা ১৯তম ওভারে চার ও ছক্কা মেরে তুলে নেন ১৪ রান, ম্যাচ চলে যায় খুলনার নিয়ন্ত্রণে। তবে শেষ ওভারে ৯৬ রানে ব্যাটিং করা অবস্থায় ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে মালিকের হাতে ধরা পড়ে যান মুশফিক।

আউট হওয়ার আগেই মালিকের ৮৭ রানের ইনিংস টপকে যাওয়ার পাশাপাশি নিজের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলার রেকর্ডও গড়েন মুশফিক। কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে তার আগের সর্বোচ্চ ছিলো ৮৬ রান। বিপিএলের দ্বিতীয় আসরে সিলেট রয়্যালসের হয়ে খুলনা রয়েল বেঙ্গলের বিপক্ষে খেলেছিলেন সে ইনিংসটি। ছয় বছর পর ছাড়িয়ে গেলেন নিজেকে।

বিপিএলের চলতি আসরে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংস
১. মুশফিকুর রহীম (খুলনা টাইগার্স) – ৯৬ বনাম রাজশাহী রয়্যালস
২. শোয়েব মালিক (রাজশাহী রয়্যালস) – ৮৭ বনাম খুলনা টাইগার্স
৩. মোহাম্মদ মিঠুন (সিলেট থান্ডার) – ৮৪ বনাম চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স
৪. মোহাম্মদ নাইম শেখ (রংপুর রেঞ্জার্স) – ৭৮ বনাম চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স
৫. দাসুন শানাকা (কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স) – ৭৫* বনাম রংপুর রেঞ্জার্স