পেঁয়াজ লাগবে- ‘পানি ভাত’কে তাই ‘নুন ভাত’ বললেন প্রধানমন্ত্রী: আলাল

বুধবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৯

ঢাকা : ‘অসৎ পথে বিরিয়ানি খাওয়ার থেকে সৎ পথে কামাই করে নুন ভাত খাওয়াও ভালো’- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন বক্তব্যকে ‘পেঁয়াজ প্রসঙ্গ’ এড়িয়ে যাওয়ার কৌশল হিসেবে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও সাবেক যুবদলের সভাপতি অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

তিনি বলেন, ‘পেঁয়াজের জন্য মানুষ হাহাকার করছে, আর প্রধানমন্ত্রী স্পেনে বসে বলছেন- ‘সৎপথে নুন ভাত ভালো’। নুন ভাত তো কখনও আমরা শুনি নাই। আমরা তো জানি সৎপথে ‘পানি ভাত’ই ভালো। বাংলাদেশের মানুষ তো পানি ভাত, পান্তা ভাতের সঙ্গে পরিচিত। অথচ প্রধানমন্ত্রী পানি ভাত না বলে নুন ভাত খেতে বললেন। কারণ পা‌নি ভাত বললে তো এর সঙ্গে প‌রো‌ক্ষভাবে পেঁয়াজের প্রসঙ্গ চলে আসবে। কেননা পানি ভাত খেতে পেঁয়াজ লাগে। তাই প্রধানমন্ত্রী পানি ভাতকে নুন ভাত বলে জনগণের সংকটকে এড়িয়ে গেছেন।’

বুধবার (৪ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে কল্যাণ পার্টির যুগপূর্তি অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

আলাল বলেন, ‘বাংলাদেশ অকল্যাণকর এমন কোনও কাজ নেই যা এ সরকার করছে না। মানুষ ১ কেজি পেঁয়াজ কিনার জন্য রোদের মধ্যে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকছে। আর প্রধানমন্ত্রী মানুষের এই কষ্ট নিয়ে মশকরা করে পানি ভাতকে নুন ভাত বলে এড়িয়ে যাচ্ছেন।’

‘ভারত আমাদের ধোঁকা দিয়েছে’- বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির এ বক্তব্য তুলে ধরে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘ভারত তো আমাদের মুক্তিযুদ্ধের বন্ধুরাষ্ট্র। এ সরকারের কিছু কিছু মন্ত্রীও তো বলেন- ‘ভারত ও বাংলাদেশের সম্পর্ক স্বামী-স্ত্রীর মতো’। আর বাণিজ্যমন্ত্রী এবার বললেন- ‘ভারত আমাদের ধোঁকা দিয়েছে’।’

প্রধানমন্ত্রীর কার্যাল‌য়ে পেঁয়াজ ছাড়া রান্না হয়- খোদ প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্য উল্লেখ ক‌রে আলাল বলেন, ‘দেশে চাউলের দাম বেড়েছে, সবজির দাম বেড়েছে, সব নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়েছে। তাহলে কি যেটার দাম বাড়বে আস্তে আস্তে সেটা আমরা খাওয়া বন্ধ করে দেবো? এখন শীতের মৌসুম এসেছে। এই শীতে গরম কাপড়ের দাম বাড়লে কি আমরা জামা পরা বাদ দেবো? প্রধানমন্ত্রীর অমৃত ভাষণে আমার তো তাই মনে হচ্ছে।’

কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান জেনারেল মুহাম্মদ ইব্ররাহিম বীরপ্রতীকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জেএস‌ডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব ও সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।