বাংলাদেশ জঙ্গি দমনে সক্ষম: তথ্যমন্ত্রী

বুধবার, নভেম্বর ২৭, ২০১৯

ঢাকা : বাংলাদেশে জঙ্গি দমন যতটা সম্ভব হয়েছে পৃথিবীর অন্য কোনও রাষ্ট্রে তেমন হয়নি বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, ‘আমরা জঙ্গি নির্মূল করতে পেরেছি এই কথা বলবো না। কিন্তু বাংলাদেশ জঙ্গি দমন করতে সক্ষম হয়েছে।’

বুধবার (২৭ নভেম্বর) ঢাকা রি‌পোটার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে এক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আজকে হলি আর্টিজান হামলা মামলার রায় দিয়েছেন আদালত। সেখানে ৭ জনের ফাঁসি হয়েছে। হলি আর্টিজানে জঙ্গিরা যেভাবে হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে, এই ঘটনার পর সংবাদপত্রে অনুসন্ধানী রিপোর্ট বিচার প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করার ক্ষেত্রে সহায়তা করেছে। বাংলাদেশের গণমাধ্যম সবসময় জঙ্গিদের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করেছে। এই রিপোর্টগুলো ভবিষ্যতে জঙ্গি তৈরি না হওয়ার ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ইঙ্গিত করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘যখন আমরা জঙ্গিদের গ্রেফতার করছিলাম তখন খালেদা জিয়া বলেছিলেন, কিছু লোককে ধরে আনা হয়, কিছুদিন ধরে রেখে দেওয়া হয়, তারপর চুল দাড়ি লম্বা হলে তাদেরকে জঙ্গি হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয়। এই ধরনের দায়িত্বহীন কথাবার্তা জঙ্গি দমনে বড় প্রতিবন্ধকতা।’

পুরস্কারপ্রাপ্ত সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সমাজের অসঙ্গতি তুলে ধরার ক্ষেত্রে, সাংবাদিকের ভালো রিপোর্টিং অত্যন্ত সহায়ক হয়। সাংবাদিকতা এমন একটি পেশা— যাদের মুখে ভাষা নেই তাদেরকে ভাষা দিতে পারে। যার কাছে ক্ষমতা নেই তাকে ক্ষমতাবান করতে পারেন। যে প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না, তাকে প্রতিবাদ করতে উদ্বুদ্ধ করা হয়। সুতরাং এই দায়িত্ব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এজন্যই গণমাধ্যমকে রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ বলা হয়। আপনারা সত্য বিষয়টাকে তুলে ধরার চেষ্টা করবেন সবসময়।’

অনুষ্ঠানে ডিআরইউ সভাপতি ইলিয়াস হোসেন, ডিআরইউ’র সাবেক সভাপতি শাহজাহান সরদার, জাতীয় প্রেসক্লাব সভাপতি ও দৈনিক যুগান্তরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক সাইফুল আলম, ডিআরইউ সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ খানসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।