পটুয়াখালীতে যুবলীগ সভাপতিকে কুপিয়েছে ছাত্রলীগ

বুধবার, নভেম্বর ২৭, ২০১৯

পটুয়াখালী : আধাপিত্য বিস্তার নিয়ে পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ও আমড়াগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ড সদস্য রুহুল কুদ্দুসকে কুপিয়ে রক্তাক্ত করার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। মুমূর্ষূ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে সুবিদখালী বাজার সংলগ্ন বটতলা নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় কুদ্দুসের ছোট ভাই মশিউর রহমান বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করলেও বুধবার সকাল সাড়ে ৮টায় এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সুবদখালী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. সায়েখ ও ছাত্রলীগ কর্মী শাহিনের নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একটি দল কথা আছে বলে কুদ্দুসকে বটতলায় নিয়ে আসে। কথা বলার এক পর্যায়ে কুদ্দুসকে উপর্যপরি কুপিয়ে ও পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ফেলে রেখে চলে যায় তারা। স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় কুদ্দুসকে উদ্ধার করে প্রথমে মির্জাগঞ্জ হাসপাতালে নেয়ার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠায়।

মির্জাগঞ্জ থানার ওসি এম আর শওকত আনোয়ার ইসলাম জানান, এ ঘটনায় সায়েখ ও শাহিনসহ ৪ জনের নাম উল্লেখ করে ১০/১২ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে থানায় একটি মামলা দয়ের করেছেন তার ছোট ভাই। ঘটনার পর বিভিন্ন স্থানে পুলিশ অভিযান চালিয়েছ। কিন্তু আসামিরা গা ঢাকা দেওয়ায় কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। তবে আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।