তুরস্ক থেকে সিরিয়ার ‘নিরাপদ অঞ্চলে’ যেতে শুরু করেছে শরণার্থীরা

মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৬, ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক: সিরিয়ার সন্ত্রাসী মুক্ত ‘নিরাপদ অঞ্চলে’ তুরস্কে থাকা শরণার্থীরা ফেরত যেতে শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ফুয়াত ওকতাই।

তিনি বলেন, তুরস্ক থেকে ৩ লাখ ৭০ হাজার শরণার্থী স্বেচ্ছায় নিজ দেশে সন্ত্রাসমুক্ত অঞ্চলে ফেরত গেছে।

মঙ্গলবার দক্ষিণ-পূর্ব গাজিয়ানটেপ প্রদেশে একটি আন্তর্জাতিক সংগঠনকে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ৩ লাখ ৭০ হাজার মানুষ সন্ত্রাসমুক্ত এলাকায় আমাদের দেশ ছেড়ে চলে গেছে। আমরা সব ধরনের সেবা অব্যাহত রেখেছি, বিশেষ করে ওই এলাকার নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, আশ্রয়কেন্দ্র, সড়ক, পানি এবং বিদুত্যের। যাতে সিরিয়ান অন্য ব্যবহারকারীদের সঙ্গে তারা বৈষম্যের শিকার না হন।

যে কোনো পরিস্থিতিতে আঙ্কারা বিদেশি সমর্থনে শান্তির করিডোর বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর বলেও তিনি পুর্নব্যক্ত করেন।

ওকতাই সিরিয়ায় সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানের কথা উল্লেখ করে বলেন, ওই এলাকার মানুষের স্বাভাবিক জীবন ফিরিয়ে আনতে আঙ্কারা সিরিয়ায় নিরাপদ অঞ্চল প্রতিষ্ঠায় সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান চালিয়েছে।

গত ৯ অক্টোবর আঙ্কারা সীমান্ত নিরাপদ ও সিরিয়ায় নিরাপদ অঞ্চল প্রতিষ্ঠাসহ কয়েকটি পরিকল্পনা নিয়ে কুর্দি ও আইএসের বিরুদ্ধে অপারেশন পিস স্প্রিং শুরু করে। এর আগে ২০১৮ সালে তুরস্ক সফলভাবে কুর্দি সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে অপারেশন অলিভ ব্রাঞ্চ অভিযান পরিচালনা করে।