৬ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়া সেই গোলাম মাওলা আটক

সোমবার, নভেম্বর ২৫, ২০১৯

বরিশাল : বরিশালের বানারীপাড়ায় সদস্যদের প্রায় ৬ কোটি টাকা হাতিয়ে আত্মগোপনে থাকার পর প্রত্যাশা বহুমুখী সমবায় সমিতির মালিক গোলাম মাওলাকে আটক করে পুলিশ প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে উপজেলার চৌয়ারীপাড়া ক্লাব এলাকা থেকে প্রত্যাশা বহুমুখী সমবায় সমিতির সদস্যরা তাকে আটক করে পুলিশ প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করেন।

পরে গোলাম মাওলা আগামী জুন মাসের মধ্যে সদস্যদের সব প্রকার পাওনা টাকা পরিশোধ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ছাড়া পান।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আবদুল্লাহ সাদীদ বলেন, গোলাম মাওলার কাছে সদস্যরা এখনও প্রায় ৬ কোটি টাকা পাবেন। এর আগে সে সদস্যদের ২২ লাখ টাকা পরিশোধ করেছে।

এদিকে গোলাম মাওলার কাছে ৫ লক্ষাধিক টাকা জমা রেখে সঠিক সময় না পেয়ে সম্প্রতি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন বন্দর বাজারের ব্যবসায়ী নির্মল কর্মকার। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

একইভাবে তার বিরুদ্ধে বন্দর বাজারের শ্রমিক ভবানী অভিযোগ করেন, তার পরিবার ও আত্মীয় স্বজনরা গোলাম মাওলার কয়েক লাখ টাকা জমা রেখেছেন। সে তাদেরকে লাভসহ ওই টাকা পরিশোধ না করে দীর্ঘ দিন ধরে আত্মগোপনে রয়েছেন। এ বিষয়ে গোলাম মাওলা জানান, যারা তার কাছে পাওনা টাকা আগামী ৩০ জুনের মধ্যে পরিশোধ করবেন।

বরিশাল : বরিশালের বানারীপাড়ায় সদস্যদের প্রায় ৬ কোটি টাকা হাতিয়ে আত্মগোপনে থাকার পর প্রত্যাশা বহুমুখী সমবায় সমিতির মালিক গোলাম মাওলাকে আটক করে পুলিশ প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরে উপজেলার চৌয়ারীপাড়া ক্লাব এলাকা থেকে প্রত্যাশা বহুমুখী সমবায় সমিতির সদস্যরা তাকে আটক করে পুলিশ প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করেন।

পরে গোলাম মাওলা আগামী জুন মাসের মধ্যে সদস্যদের সব প্রকার পাওনা টাকা পরিশোধ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ছাড়া পান।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আবদুল্লাহ সাদীদ বলেন, গোলাম মাওলার কাছে সদস্যরা এখনও প্রায় ৬ কোটি টাকা পাবেন। এর আগে সে সদস্যদের ২২ লাখ টাকা পরিশোধ করেছে।

এদিকে গোলাম মাওলার কাছে ৫ লক্ষাধিক টাকা জমা রেখে সঠিক সময় না পেয়ে সম্প্রতি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন বন্দর বাজারের ব্যবসায়ী নির্মল কর্মকার। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

একইভাবে তার বিরুদ্ধে বন্দর বাজারের শ্রমিক ভবানী অভিযোগ করেন, তার পরিবার ও আত্মীয় স্বজনরা গোলাম মাওলার কয়েক লাখ টাকা জমা রেখেছেন। সে তাদেরকে লাভসহ ওই টাকা পরিশোধ না করে দীর্ঘ দিন ধরে আত্মগোপনে রয়েছেন। এ বিষয়ে গোলাম মাওলা জানান, যারা তার কাছে পাওনা টাকা আগামী ৩০ জুনের মধ্যে পরিশোধ করবেন।