বিভিন্ন বদভ্যাসে ভাঙ্গে সংসার

শনিবার, নভেম্বর ২৩, ২০১৯

লাইফস্টাইল ডেস্ক : সংসার ভাঙার কারণ নিয়ে একটি ল ফার্মের পরিসংখ্যানে দেখা যায় প্রতি ১০টি বিয়ে বিচ্ছেদের মধ্যে একটির কারণ বদভ্যাস। এ লেখায় থাকছে তেমন কিছু বদভ্যাসের কথা। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ইন্ডিপেনডেন্ট।

প্রতি বছর যুক্তরাজ্যের প্রায় ৩ শতাধিক বিয়ে বিচ্ছেদের আইনি দিক নিয়ে কাজ করে জেএমডব্লিউ সলিসাইটর্স। এ প্রতিষ্ঠানটি জানায় প্রতি ১০টি বিয়ে বিচ্ছেদের মধ্যে একটি বদভ্যাসের কারণে ঘটে থাকে। দাম্পত্য জীবনে একজনের বা উভয়ের এসব বদভ্যাসের কারণে তারা একে অন্যের কাছে বিরক্তিকর হয়ে ওঠে। আর তাতেই ভেঙে যেতে পারে সংসার।

যেসব বদভ্যাসের কারণে বিয়ে ভেঙে যায় তার মধ্যে রয়েছে সঙ্গীর সাথে শিশুর মতো আচরণ করা। অনেকের আবার ব্যক্তিগত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বিষয়েও বদভ্যাস থাকে, যা তাদের বিচ্ছেদের দিকে নিয়ে যায়। এছাড়া রয়েছে মানসিক নানা বদভ্যাস।

সঙ্গীর নানা বিষয় নিয়ে ক্রমাগত অভিযোগ করা অনেকের অভ্যাস। এ বদভ্যাসের কারণেও বিয়ে বিচ্ছেদ হতে পারে।

আইনী সহায়তা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে অনেকেই সঙ্গীর পর্নোগ্রাফি ব্যবহার কিংবা জুয়া খেলার বদভ্যাসের কারণে বিচ্ছেদে আগ্রহী হয়ে ওঠেন। যদিও এ ধরনের বহু বিষয় তারা আইনের কাঠামোতে লিপিবদ্ধ করেন না। মূলত জটিলতা এড়াতেই এ ব্যবস্থা নেন তারা। জেএমডব্লিউ-এ কর্মরত সিনিয়র অ্যাসোসিয়েট গিয়ানা সিসিয়েকি-কুনেন জানান, বাজে অভ্যাসের কারণে যে পরিমাণ বিয়ে বিচ্ছেদ হয়, তা সত্যিই আশ্চর্যজনক। এতে ইন্টারনেট একটি বড় ভূমিকা পালন করে বলেও জানান তিনি।

বর্তমানে ইন্টারনেট যেভাবে প্রসারিত হয়েছে, তাতে বহু মানুষেরই ব্যক্তিগত কাজকর্ম আগের তুলনায় পাল্টে গেছে। বিশেষ করে মাত্র ১০ বছর আগেও মানুষের ইন্টারনেট ব্যবহারের হার ভিন্ন ছিল। আর এ ভিন্ন প্রেক্ষাপটে বিচ্ছেদের ক্ষেত্রে ইন্টারনেটের ভূমিকা বড় হয়ে দেখা দিচ্ছে। ইন্টারনেট যেমন রয়েছে ইচ্ছেমতো পর্নোগ্রাফি দেখার সুযোগ তেমন রয়েছে জুয়া ও অন্যান্য বদভ্যাস লালন-পালন করার সুবিধা। এসব বিষয়ও বিয়ে বিচ্ছেদের ক্ষেত্রে বড় নিয়ামক হয়ে উঠছে বলে জানান গবেষকরা।