হলের বাইরে ভোটকেন্দ্র চেয়ে মিছিল

মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৯, ২০১৯

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদের নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র আবাসিক হলের বাইরে একাডেমিক ভবনে করার দাবিতে মিছিল ও সমাবেশ করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা৷ সংগঠনটির নেতাদের বক্তব্য, আবাসিক ভবনে ডাকসু নির্বাচনের ভোটকেন্দ্র করা হলে নির্বাচনের নামে প্রহসন করার সুযোগ থাকে।

হলের বাইরে ভোটকেন্দ্রের দাবিতে আজ মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যানটিন থেকে মিছিল বের করে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবন ও ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) প্রদক্ষিণ করে অপরাজেয় বাংলায় গিয়ে সমাবেশ করে সংগঠনটি৷

সমাবেশে ছাত্র ফ্রন্টের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সালমান সিদ্দিকী বলেন, ‘ছাত্রলীগ বাদে অন্য ছাত্রসংগঠনগুলোর অধিকাংশ নেতা-কর্মী আবাসিক হলগুলোতে অবস্থান করতে পারছেন না। নিজেদের মত প্রকাশের পরিবেশ সেখানে নেই৷ সাধারণ ছাত্রদের অবস্থা আরও দুর্বিষহ। সেখানে ছাত্রদের ওপর নির্যাতন চলে, মিছিলে যেতে বাধ্য করা হয়। এই পরিবেশে নির্বাচন হলে নির্বাচনের উদ্দেশ্য ব্যাহত হবে এবং দখলদারিত্ব প্রাতিষ্ঠানিক বৈধতা পাবে। তাই নির্বাচনের ভোটকেন্দ্র হলগুলোতে না করে নিকটস্থ একাডেমিক ভবনগুলোতে করতে হবে। ছাত্রলীগসহ দু-একটি সংগঠন ছাড়া সবাই এই দাবিকে যথার্থ মনে করে৷’

সংগঠনের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক প্রগতি বর্মণ তমা বলেন, ‘আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভার মধ্য দিয়ে নির্ধারিত হবে প্রশাসন ছাত্রদের যৌক্তিক দাবি মেনে নিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচন করবে, নাকি নির্বাচনের নামে ছাত্রদের প্রতারিত করবে? যদি নির্বাচনের নামে নাটক মঞ্চায়নের চেষ্টা চলে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা তার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলবে৷’ ডাকসুর সভাপতি হিসেবে উপাচার্যের ক্ষমতাকে ‘একচ্ছত্র’ আখ্যা দিয়ে এতে ভারসাম্য আনার দাবিও জানান তিনি।

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে ছাত্র ফ্রন্টের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহসভাপতি সাদিকুল ইসলাম বক্তব্য দেন৷

এর আগে আজ পৃথক কর্মসূচিতে ডাকসু নির্বাচনের ভোটকেন্দ্র হলের বাইরে করার দাবি জানায় ছাত্র ইউনিয়ন ও ছাত্র ফেডারেশন৷ আজ সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভা বসছে৷ সভায় সিদ্ধান্ত হবে ডাকসুর ভোটার বা প্রার্থী হতে পারবেন আর কোথায় ভোটকেন্দ্র হবে৷