‘একটু সময় দিতে হবে আমাকে’

সোমবার, নভেম্বর ৫, ২০১৮

বিনোদন: অনেকদিন ধরে ক্যামেরার সামনে নেই ঢালিউডের অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা শাবনূর। তবে ভক্তরা তার নতুন কাজ আবারো দেখতে চায়

বলে জানিয়েছেন ঢালিউডের একাধিক নির্মাতা। এদিকে মাঝে শাবনূরও বলেছেন যে, শিগগিরই কাজ শুরু করবেন। তবে নতুন কাজ নিয়ে সত্যিই কি

কোনো পরিকল্পনা আছে এ অভিনেত্রীর? এমন প্রশ্ন এখন অনেকের মনে। সবশেষ ২০১৬ সালের শেষদিকে শাবনূর অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরে ‘ইউরো

স্টার’ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের চুলার বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হিসেবে কাজ করেন। এটি নির্দেশনা দেন আহমেদ ইলিয়াস। এরপর মাঝে টিভির একটি

অনুষ্ঠানে উপস্থাপক, অভিনেতা ও পরিচালক শাহরিয়ার নাজিম জয়ের অতিথি হিসেবে গিয়েছিলেন। এদিকে নতুন কাজ নিয়ে কবে দর্শকের সামনে

হাজির হবেন জানতে চাইলে শাবনূর হেসে বলেন, অবশ্যই ফিরবো, তবে একটু সময় দিতে হবে আমাকে।

এ সময়ের সিনেমা সম্পর্কে শাবনূর বলেন, বর্তমানে তো শুনছি কোনো সিনেমা ঠিকমতো ব্যবসা করছে না। এ বছর ‘পোড়ামন টু’ ও ‘দেবী’ ছবি দুটি

দেখেছি। দুটি ছবিই আমার ভালো লেগেছে। নতুন নির্মাতারা ভালো সিনেমা নির্মাণ করছেন। আমি নতুন কাজ নিয়ে ভাবছি। গত শনিবার চিত্রনায়িকা

মৌসুমীর জন্মদিন উদযাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শাবনূর। সেখানে জানালেন চলচ্চিত্রের সমসাময়িক বিষয় নিয়ে নানা কথা। জনপ্রিয় এই

চিত্রনায়িকা বললেন, কয়েকদিন ধরে অসুস্থ থাকার কারণে বের হয়নি। তবে সব কাজ বাদ দিয়ে ঘরে বসে থাকা একদমই পছন্দ করি না

আমি।সকলেমিলে আড্ডা দেয়া, একজনের বাসায় গিয়ে হঠাৎ চমক দেয়া খুব ইনজয় করি আমি। নতুন বেশকিছু কাজ নিয়ে কথা হচ্ছে। সব কিছু মিললে দ্রুতই

কাজে ফিরবো। গত কয়েকমাসে শোবিজের বাইরেও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে শাবনূরের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। জুনিয়র হোক বা সিনিয়র শিল্পী

-খুব সহজে সকলের সঙ্গে মিশতে পারেন তিনি। ঢাকাই চলচ্চিত্রে অসংখ্য হিট-সুপারহিট ছবি শাবনূর দর্শকদের উপহার দিয়েছেন। অভিনয়ের বাইরে

কয়েক মাস আগে মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘এত প্রেম এত মায়া’ নামের একটি ছবিতে গানও করেছেন তিনি। এ ছবিতে অভিনয়ের

কথাও আছে তার। তবে শারীরিকভাবে ফিট হয়েই দর্শকদের সামনে ফিরতে চান শাবনূর। তিনি বলেন, ওজন কমানো খুব কঠিন একটা কাজ। আর

হঠাৎ করে ওজন কমানো সম্ভব না। ফিট হবার জন্য আমার আরো সময় প্রয়োজন। গত বছরের রোজার ঈদের পর অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফেরেন এ

অভিনেত্রী। ফিরে জানান, অভিনয়ের বাইরে পরিচালনাও করবেন। তবে তা কবে সে বিষয়ে ঘটা করে ঘোষণা দেবেন। শাবনূর বলেন, শুধু চলচ্চিত্রে

অভিনয় না, ক্যামেরার পেছনেও পরিচালক হিসেবে কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে। সেজন্য সময় প্রয়োজন। অভিনয়ের বাইরে রাজধানীর বারিধারা

এলাকায় অবস্থিত ‘সিডনী ইন্টারন্যাশনাল স্কুল’র দুজন কর্ণধারের একজন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন শাবনূর। আরেকজন তারই ছোট বোন

ঝুমুর। স্কুল পরিচালনা নিয়েও শাবনূরের রয়েছে যথেষ্ট ব্যস্ততা। তবে নিজের অবস্থান নিয়ে অনেক সন্তুষ্ট এ অভিনেত্রী। তিনি বলেন, দীর্ঘ সময় এই

ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করেছি। আর ইন্ডাস্ট্রির ছোট-বড় সকলের কাছ থেকে ভালোবাসা ও সম্মান পেয়েছি আমি। ওমর সানী, মৌসুমী, অমিত হাসান,

অমিতের স্ত্রী লাবনী আমার পরিবারের একজন। আর চলচ্চিত্রের অনেকেই আমার খুব কাছের। পরিচালক-প্রযোজক, কলাকুশলী অনেকে আমার চলার

পথে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছেন। সবাইকে নিয়ে আমি ভালো থাকতে চাই। প্রয়োজনে তাদের পাশে থাকবো। শিল্পীদের জন্যও কাজ করতে চাই।

দেখা যাক সামনে কি করতে পারি। আগে থেকে কিছু বলতে পারছি না। শাবনূর আপাতত বাংলাদেশেই আছেন। শীতকাল এখানে উপভোগ করতে চান

এবং ভালো কাজ পেলে সেই কাজে চুক্তিবদ্ধও হবেন বলে জানান। এরপর হয়তো আবারো কিছুদিনের জন্য অস্ট্রেলিয়া যাবেন শত হিট ছবির জনপ্রিয়

এই চিত্রনায়িকা।