এবার জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে আরেকটি চাঁদাবাজি মামলা

শনিবার, নভেম্বর ৩, ২০১৮

ঢাকা : গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে আশুলিয়া থানায় আরো একটি মামলা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাতে রাজধানীর ধানমন্ডি জিগাতলা এলাকার বাসিন্দা তোফাজ্জল হোসেন বাদী হয়ে একটি অভিযোগ করেন। পরে আজ শনিবার ভোররাতে অভিযোগটিকে মামলা হিসেবে নথিভূক্ত করে পুলিশ।

মামলার আসামিরা হলেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম শিশির, জ্যেষ্ঠ প্রশাসনিক কর্মকর্তা আব্দুস সালাম এবং স্থানীয় টাকশুর এলাকার আওলাদ হোসেনসহ অজ্ঞাতনামা পাঁচ-ছয়জন।

এ নিয়ে মাছ চুরি, ফল চুরিসহ তাঁর বিরুদ্ধে নানা অভিযোগে এখন পর্যন্ত আশুলিয়া থানায় ছয়টি মামলা করা হলো।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, সাভারের মির্জানগর এলাকায় লেজার মেডিকেলের মালিক ডা. জাহানারা ফেরেদৌস খানের প্রায় দুই একর জমি রয়েছে। গত ২৭ অক্টোবর লিগ্যাল অ্যান্ড রেগুলেটরি বিভাগের নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তোফাজ্জল হোসেন সেই জমিটি দেখতে মির্জানগরে যান। এ সময় ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর নির্দেশে মো. সাইফুল ইসলাম শিশির, আব্দুস সালাম এবং আওলাদ হোসেনসহ অজ্ঞাতনামা পাঁচ-ছয়জন সন্ত্রাসী বাদীর কাছে পাঁচ কোটি টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তাঁরা বাদীসহ জমির তত্ত্বাবধায়ককে বাঁশের লাঠি ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন।

সবশেষ মামলার বিষয়ে ওসি বলেন, ‘অভিযোগের সত্যতা পেয়েই মামলাটি গ্রহণ করা হয়েছে।’

সম্প্রতি একটি বেসরকারি টেলিভিশনের টকশোতে বক্তব্য দেওয়াকে কেন্দ্র করে জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হয়। গত ১২ অক্টোবর সেনানিবাস থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি হয়। পরে ওই সাধারণ ডায়েরিটি রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হিসেবে গ্রহণ করে ডিবিকে তদন্তের নির্দেশ দেয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।