চোখ কপালে তোলা ১০ স্মার্টফোনের মুল্য!

সোমবার, অক্টোবর ২২, ২০১৮

ঢাকা : এক সময়ে মানুষ শুধু ফোনে কথা বলতে পারলেই থাকতো খুশি। কিন্তু এখন স্মার্টফোন মানেই ফ্যাশন। ভিনদেশে তো বটেই আমাদের দেশেও এসব দামি স্মার্টফোন বেশ জনপ্রিয়। জেনে নিন এমন কিছু স্মার্টফোনের কথা……

দ্য ডায়মন্ড ক্রিপ্টোঃ
ডায়মন্ড ক্রিপ্টো বিশ্বের ব্যয়বহুল ফোনের মধ্যে একটি। এই ফোনের দাম ১৩ লাখ ডলার।

হুয়াওয়ে মেট ২০ আরএস পোরশে ডিজাইনঃ
চীনের প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা হুয়াওয়ে এ বছরের সবচেয়ে দামি অ্যান্ড্রয়েডচালিত স্মার্টফোন উদ্বোধন করেছে। এর দাম প্রায় ১ লাখ ৬৭ হাজার টাকা (১ হাজার ৬৯৫ ইউরো)।

ভিআইপিএন ব্ল্যাক ডায়মন্ডঃ
ভিআইপিএন ব্ল্যাক ডায়মন্ড ফোনের দাম ৩ লাখ মার্কিন ডলার। এই ফোনের মাত্র ৫ ইউনিট উৎপাদন হয়েছে।

আইফোন এক্সএস ম্যাক্সঃ
এ বছর অ্যাপল বাজারে ছেড়েছে তাদের সবচেয়ে দামি আইফোনের মডেল। আইফোন এক্সএস ম্যাক্স ৫১২ জিবি মডেলের ফোনটির দাম ১ হাজার ৪৪৯ মার্কিন ডলার বা প্রায় ১ লাখ ২৩ হাজার টাকা।

গোল্ডভিশ একলিপ্সঃ
গোল্ডভিশ একলিপ্স ফোনের দাম ৭ হাজার ৬৬৮ ডলার। দামি মেটাল ও লেদারে তৈরি এই ফোন।

অপো ফাইন্ড এক্স ল্যাম্বরগিনি এডিশনঃ
চীনের স্মার্টফোন নির্মাতা অপো তাদের সবচেয়ে দামি ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন বাজারে এনেছে। ল্যাম্বরগিনি লিমিটেড এডিশনটি ৫১২ জিবি মডেলটির দাম ১ হাজার ৬৯৯ ইউরো।

ভার্চু অ্যাস্টার পি গোল্ডঃ
ভার্চু দেড় বছর পর অ্যাস্টার পি গোল্ড স্মার্টফোন দিয়ে বাজারে ফিরছে। ফোনটির দাম শুরু হচ্ছে ৪ লাখ টাকা থেকে। তবে এর সোনার প্রলেপ দেয়া বিশেষ সংস্করণের দাম হবে প্রায় ১২ লাখ টাকা (১৪ হাজার ১৪৬ মার্কিন ডলার)।

ক্যাভিয়ার আইফোন এক্সএস ম্যাক্সঃ
ক্যাভিয়ার আইফোন এক্সএস সিরিজে স্মার্টফোন,যার কাঠামো তৈরিতে টাইটানিয়াম ও সোনার প্রলেপ ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটির দাম পড়বে ৬ হাজার ৩২০ মার্কিন ডলার বা প্রায় ৫ লাখ ৩৬ হাজার টাকা।

স্যাভিলি শ্যাম্পেইন ডায়মন্ডঃ
এই ফোনের দাম প্রায় ৫৭ হাজার মার্কিন ডলার। এই ফোনে আছে ১৮ ক্যারেট গোল্ড শেল সঙ্গে ৩৯৫ সাদা ও কনিয়াক ডায়মন্ড।

সিরিন সোলারিনঃ
বিশ্বের দামি স্মার্টফোনগুলোর একটি হচ্ছে সিরিন সোলারিন ফোনটি। অ্যান্ড্রয়েডচালিত ফোনটির দাম ১৪ হাজার মার্কিন ডলার। সোলারিন পানি ও ধুলাবালি প্রতিরোধ করে।