এবার ‘জনগণের সরকার’ প্রতিষ্ঠা করবোই: ড.কামাল

রবিবার, অক্টোবর ৭, ২০১৮

ঢাকা: জনগণের ঐক্য প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে অবাধ, ‍সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়েছেন জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহ্বায়ক, গণফোরাম সভাপতি ও সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেছেন, ‘জনগণের ঐক্যের সামনে দাঁড়িয়ে কেউ আমাদের বঞ্চিত করতে পারবে না। আমরা জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করবোই।’

রবিবার (৭ অক্টোবর) বিবেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ভোটের অধিকারের দাবিতে আয়োজিত মানবন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. কামাল বলেন, ‘১৬ কোটি মানুষের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে হবে। এদেশ আমাদের সকলের, কোনও ব্যক্তির কিংবা কোনও দল ও পরিবারের না। অতীতে যেমন ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন সফল হয়েছে, এবারও হবে। জনগণের মালিকানা তার কাছে ফিরে আসবে।’

দেশে জনগণের মালিকানা না থাকলে পাইকারিভাবে লুটপাট হয়- দাবি করে ড. কামাল বলেন, ‘এদেশে জনগণের সম্পত্তি পাচার হয়। পত্রপত্রিকায় দেখা যায়, হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যাংক থেকে লুটপাট হচ্ছে। এগুলো যায় কোথায়? দেশে বিনিয়োগ হচ্ছে না, কলকারখানা হচ্ছে না, নতুন কর্মসংস্থান হচ্ছে না। অর্থাৎ স্বাধীনতার প্রতিশ্রুতি পালন হচ্ছে না।’

১৬ কোটি মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়ে পরিবর্তন আনবে- এমন আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, ‘আজকে জনগণও বুঝতে পারছে। আমরা যেখানেই যাই অসাধারণ একটি সাড়া পাই। আজ বোঝা যাচ্ছে দেশবাসী ঐক্যবদ্ধ হয়েই পরিবর্তন আনবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা এখনও অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরির দাবি জানাচ্ছি। কারণ আমরা মনে করি পরিবর্তন আসতে হলে অবাধ, সুষ্ঠু , নিরপেক্ষ নির্বাচনের বিকল্প নাই। অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি করে আমরা জনগণের ঐক্য প্রক্রিয়ায় নিয়োজিত।’

কোনও দাবি আদায় করতে হলে ঐক্যবদ্ধ জনগণের শক্তি দিয়ে সেটা আদায় করা যায় বলেও উল্লেখ করেন ড. কামাল।

এই সংবিধান প্রণেতা বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি আমাদের এই আন্দোলন অবশ্যই সফল হবে। এ দেশের মানুষ ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে সবকটি আন্দোলনে আমরা ঐক্যবদ্ধ ছিলাম। অসম্ভবকে সম্ভব করেছি। জনগণের মালিকানা প্রতিষ্ঠা হোক এটা তো অসম্ভব কিছু না। সংবিধানে আছে এদেশের মালিক জনগণ, আপনারা কি মালিক আছেন? সবাই নিজেকে অসহায় বোধ করে। মালিকানা রাখতে হলে মালিকের ভূমিকা রাখতে হবে। আমরা দেশে অবাধ এবং নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে সরকার গঠন করবো।’

মানববন্ধনে গণফোরামের মহাসচিব মোস্তফা মনোয়ার মন্টু, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সদস্য সচিব আ ব ম মোস্তফা আমিন, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার কেন্দ্রীয় নেতা সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহম্মেদ, ঐক্য প্রক্রিয়ার ঢাকা মহানগরের সদস্য সচিব মোস্তাক আহমেদ, গণফোরামের তথ্য ও গণমাধ্যম সম্পাদক রফিকুল ইসলাম পথিক উপস্থিত ছিলেন।