Print
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক
Wed, 29 Jan, 2014

৩২ তরুণীর সাথে যেৌন সম্পর্ক, অত:পর এইডস....

ঢাকা: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরির লিন্ডেনউড বিশ্ববিদ্যালয়ের বছর ২২ এর ছাত্র মিশেল জনসন এইচআইভি আক্রান্ত। তা জানা সত্ত্বেও সে পর পর ৩২ মহিলার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছে। ফলে মরণ জীবাণু ছড়িয়ে দিয়েছে ওই ৩২ জনের শরীরেও। শুধু তাই নয়, প্রত্যেকবার যৌন সম্পর্ক স্থাপনের সময়, সে সব ক্যামেরাবন্দিও করেছে জনসন।


প্রথমে পুলিশ মনে করছিল, কয়েকজনকেই আক্রান্ত করেছে সে। কিন্তু পরে জনসনের সেক্স টেপ আবিষ্কারের পর, সেই ধারণাও ভুল প্রমাণিত হয়। সেন্ট চার্লস কাউন্টির বিচারক টিম লোহমার বলেন, সেই ল্যাপটপে ৩২টি ভিডিও পাওয়া যায়, যেখান থেকে জানা গিয়েছে, তিনি ৩২ জনের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হন। চার মাসের মধ্যে এই ভিডিওগুলি ধারণ করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, ওই ৩২ জনই জানত না যে জনসন এইচআইভিতে আক্রান্ত এবং সে সমস্ত কিছুই ক্যামেরাবন্দি করে রাখছে।
ঘটনার পরই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আক্রান্ত পড়ুয়াদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে। দোষ প্রমাণিত হলে জনসনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে।