Print
প্রচ্ছদ » জাতীয়
Tue, 28 Jan, 2014

ব্যাংক ডাকাতির ১৬ কোটি ১৯ লাখ ৫৬ হাজার টাকা উদ্ধার

ঢাকা : কিশোরগঞ্জে সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখায় ডাকাতির ঘটনায় ১৬ কোটি ১৯ লাখ ৫৬ হাজার ৬৫ টাকা উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

এর আগে ডাকাতি মামলার প্রধান আসামি হাবিব ওরফে সোহেলকে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় লুট করা পাঁচ বস্তা টাকাও উদ্ধার করা হয়। টাকা গুণে দেখা যায় ১৬ কোটি ১৯ লাখ ৫৬ হাজার ৬৫ টাকা রয়েছে। তবে ধারণা করা হচ্ছে চুরি করা টাকার পরিমাণ ১৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক কর্নেল জিয়াউল আহসান জানান, মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর শ্যামপুর থেকে ডাকাতি হওয়া টাকাসহ হাবিবুর রহমান ওরফে সোহেল রানা ও তাঁর সহযোগী ইদ্রিস মিয়াকে আটক করা হয়।

গত ২৬ জানুয়ারি কিশোরগঞ্জ শহরের রথখোলা এলাকার ঈশা খাঁ রোডের সোনালী ব্যাংকের একটি শাখা থেকে ১৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা লুট করে ডাকাতরা। ১৬ ফুট অভিনব সুড়ঙ্গ কেটে ভেতরে প্রবেশ করে দুর্বৃত্তরা।

শাখাটির নিরাপত্তায় সার্বক্ষণিক পুলিশি পাহারার মধ্যেই এই চুরি হলো। এ ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে পুলিশের আট সদস্যকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

দুঃসাহসিক এই চুরির ঘটনায় গতকাল সোমবার ওই শাখার ব্যবস্থাপক মো. হুমায়ুন কবীর ভূঁঞা, যুগ্ম জিম্মাদার মো. মোহসিনুল হক, হাসান আহম্মদ মঈনসহ ব্যাংকের ১২ জন কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে এবং একই কারণে আরও ছয়জনকে শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে আটক করে পুলিশ।

এ ঘটনায় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার মো. শাহজাহানের নেতৃত্বে ১৫ সদস্যের একটি বিশেষ দল তদন্ত করছে।