Print
প্রচ্ছদ » রাজনীতি
Tue, 28 Jan, 2014

হাসিনার বাকশালী কাচের ঘর ভেঙে যাবে: জাফর

ঢাকা: শেখ হাসিনার সাজানো বাকশালী কাচের ঘর জনবিস্ফোরনের মাধ্যমে ভেঙে খান খান হয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান কাজী জাফর।

মঙ্গলবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে নাগরিক আন্দোলন আয়োজিত ‘শহীদ জিয়া-গণতন্ত্র আজকের প্রেক্ষাপট’-শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

কাজী জাফর বলেন, ২৫ জানুয়ারীর নির্বাচন প্রমান করে দিয়েছে বাংলার মাটিতে এখনও বাকশাল কায়েম রয়েছে। আওয়ামী লীগ অনেক বড় রাজনৈতিক সংগঠন হতে পারে কিন্তু তাদের মন অত্যন্ত ছোট।তারা ক্ষমতা লোভী।ক্ষমতা পাওয়ার জন্য গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে আওয়ামী লীগ সরকার।তারা সংবিধানে শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি করে আজীবন ক্ষমতায় চিকে থাকতে চায়।

তিনি বলেন, আজ আমরা জাতীয় পার্টিকে রাহমুক্ত করেছি।এরশাদের সকল ভন্ডামী, ভাওতাবাজি, দুমোখা আচরণ থেকে জাতীয় পার্টিকে রক্ষা করেছি। বাংলাদেশে যেকোন সময় গণঅভ্যূথ্যান ও জনবিস্ফোরণ ঘটতে পারে।
৫ জানুয়ারীর নির্বাচনের মধ্যদিয়ে যে গণতন্ত্র নিহত হয়েছে আগামীকাল তার জানাযা।২৯ জানুয়ারী সংসদ কার্যকর হওয়া মধ্য দিয়ে নিহত গণতন্ত্রকে জানাযা দেওয়া হবে বলেও মন্তব্য করেন জাতীয় পার্টির প্রেসিজিয়াম সদস্য আহসান হাবিব লিংকন।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, সরকার ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনের মাধ্যমে যুদ্ধ না করেই খালেদা জিয়াকে হারিয়ে দিয়েছে।গম চুরি ও টাকার ভাগ বাটোয়ার কখন করবে সে জন্য সরকার নিজেদের মত করে সংবিধান সংশোধন করে নির্বাচন দিয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, দেশের এমন ক্রান্তি লগ্নে যদি খালেদা জিয়া মুখ গোমরা করে বসে থাকে তবে কোন লাভ হবে না। গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করতে হলে তাকে পরিস্কার ভাবে কথা বলতে হবে, কান্ডারীর ভূমিকা রাখতে হবে।

নাগরিক আন্দোলনের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম এ খালেক, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আহসান হাবিব লিংকন, সাবেক সংসদ সদস্য রাশিদা আক্তার হীরা, ঢাকা মহানগরের সভাপতি আসাদুল করিম পিন্টু, কেন্দ্রীয় কৃষক দলের ছাত্র নেতা শাহাজাহান মিয়া স¤্রাট প্রমুখ।