হার্শাল প্যাটেলের হ্যাটট্রিকে জিতল বেঙ্গালুরুর

সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১

স্পোর্টস ডেস্ক : দুবাইয়ের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ১৬৬ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডি কক ৫৭ রানের জুটি গড়েন। ডি কক ২৪ রানে আউট হওয়ার পর দলীয় ৮১ রানে ফিরে যান রোহিত শর্মাও।

২৮ বলে ১৫৩.৫৭ স্ট্রাইকরেটে ৪৩ রান করে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের শিকারে পরিণত হন তিনি। এরপর ছোট বিরতিতে আরও দুটি উইকেট খুইয়ে চাপে পড়ে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। ইশান কিশান ৯, সূর্যকুমার যাদব ৮ ও ক্রুনাল পান্ডেয়া ৫ রান করে আউট হন। ক্রুনালকে বোল্ড করেন ম্যাক্সওয়েল।

মুম্বাই যখন চাপে তখনই হার্শাল প্যাটেল শো দেখে দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম। দলীয় ১৭তম ওভারে বল হাতে নিয়ে হ্যাটট্রিক পূরন করেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স পেসার। প্রথম বলে তিনি হার্দিক পান্ডেয়াকে বিরাট কোহলির ক্যাচ বানান। দ্বিতীয় বলে কেইরন পোলার্ড সরাসরি বোল্ড হন। তৃতীয় বলে হার্শাল রাহুল চাহারকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন। আইপিএলে বেঙ্গালুরুর বোলারদের এটি তৃতীয় হ্যাটট্রিক। ২০১০ সালে দলটির হয়ে প্রথম হ্যাটট্রিক করেন প্রভীন কুমার। ২০১৭ সালে আরেকটি হ্যাটট্রিক আসে স্যামুয়েল বদ্রির হাত ধরে।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অ্যাডাম মিলনে, রাহুল ও বোল্ট রানের খাতাই খুলতে পারেননি। বুমরাহ করেন ৫ রান। প্যাটেল ১৭ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট। যুজবেন্দ্র চাহাল পান ৩ উইকেট। ম্যাক্সওয়েলের শিকার ২ উইকেট।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ১৬৫ রান করে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। বিরাট কোহলি আগের কয়েকটি ম্যাচের তুলনায় এ ম্যাচে ছিলেন একটু ভালো ফর্মে। অধিনায়কের মতো দলকে লিড দেন তিনি। ওপেনিংয়ে নেমে ৪২ বলে ৫১ রান করেন তিনি। তার ইনিংসে ছিল ৩টি করে চার ও ছয়ের মার। তার ওপেনিং সঙ্গী দেবদূত পাডিকল ৪ বলে খেলেও রানের খাতা খুলতে পারেননি।

ফর্ম হারিয়ে ফর্ম খুঁজতে থাকা গ্লেন ম্যাক্সওয়েলও এদিন দলের লড়াকু স্কোরে বিরাট অবদান রাখেন। ৩৭ বলে দলীয় সর্বোচ ৫৬ রান আসে তার ব্যাট থেকে। অন্যদের মধ্যে শ্রিকর ভারত ৩২ ও এবি ডি ভিলিয়ার্স ১১ রান করেন। মুম্বাইয়ের হয়ে তিনটি উইকেট নেন জাসপ্রীত বুমরাহ। একটি করে উইকেট পান ট্রেন্ট বোল্ট, অ্যাডাম মিলনে ও রাহুল চাহার।

এ জয়ের ফলে ১০ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তিন নম্বরে অবস্থান করছে কোহলির দল। সমানসংখ্যক ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে মুম্বাই আছে টেবিলের সপ্তম স্থানে।