বেঁচে থাকার প্রয়োজনে সবাই নিজ ঘরে অবস্থান করুন : কাদের

শনিবার, জুলাই ২৪, ২০২১

ঢাকা : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মানুষের উদাসীনতায় লাগামহীনভাবে করোনার সংক্রমণ বাড়তে থাকলে ভয়ানক অবস্থা তৈরি হতে পারে। তাই বেঁচে থাকার প্রয়োজনে সবাইকে ত্যাগ স্বীকার করে নিজ নিজ ঘরে অবস্থান করার অনুরোধ জানান তিনি।

শনিবার (২৪ জুলাই) সকালে ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবনে অনলাইন ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, জনস্বার্থে ও জনজীবনের সুরক্ষায় শেখ হাসিনা সরকার ‌কঠোর বিধি-নিষেধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে জোরদার করার পাশাপাশি পূর্ণ সতর্কতা বজায় রেখে ও চলমান বিধি-নিষেধ প্রতিপালন করে সংক্রমণের উচ্চমাত্রাকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

তিনি বলেন, লকডাউনে খেটেখাওয়া মানুষের জীবনের অনিশ্চয়তা বেড়ে যায়, তবুও জীবনের সুরক্ষার প্রয়োজনে জনস্বার্থে কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আমাদের উদাসীনতায় লাগামহীনভাবে সংক্রমণ বাড়তে থাকলে ভয়ানক অবস্থা তৈরি হতে পারে। তাই জনস্বার্থে ও জনজীবনের সুরক্ষায় শেখ হাসিনা সরকার এই কঠোর বিধি-নিষেধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বেঁচে থাকার প্রয়োজনে সবাইকে ত্যাগ স্বীকার করে নিজ নিজ ঘরে অবস্থান করার অনুরোধ জানান আওয়ামী লীগের এই নেতা।

তিনি বলেন, অহেতুক কেউ বাইরে বের হবেন না ৷ শতভাগ মাস্ক ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে বিধি-নিষেধের প্রয়োজন হতো না ৷ কিন্তু কারো কারো উদাসীনতা এবং ঝুঁকি তোয়াক্কা না করে চলা-ফেরার কারণে সংক্রমণ পেয়েছে ঊর্ধ্বগতি।

সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের পাশাপাশি চলমান লকডাউনে কর্মহীন ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে ওবায়দুল কাদের আওয়ামী লীগের সব নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিদের মানবিক সহায়তা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান।