হলি লাইফ মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে নির্যাতনে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ

বুধবার, মার্চ ৩, ২০২১

ঢাকা : মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে এসে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরা হলো না বরিশালের বাকেরগঞ্জের ইয়াসিনের। মালিবাগের হলি লাইফ হাসপাতালে দেড় মাস চিকিৎসা শেষে প্রাণ গেল তার। পরিবারের অভিযোগ, নির্যাতন করেই মেরে ফেলা হয়েছে ইয়াসিনকে। তবে হলি লাইফের পরিচালকের দাবি, ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ইয়াসিন। তবে চিকিৎসক জানিয়েছেন, নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন আছে।

গেল ২২ জানুয়ারি ইয়াসিনকে মালিবাগের হলি লাইফ মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করে তার পরিবার। এরপর পিতার সাথে দেখা হলো নিথর দেহে। মঙ্গলবার সকালে অসুস্থতার খবর পেয়ে মালিবাগের খিদমাহ হাসপাতালে ছুটে গেলে সন্তানকে পান মৃত।

পুলিশে অভিযোগ জানালে তাৎক্ষণিক ৪ জনকে আটক করা হয়। তবে তারপর থেকেই মুখে কুলুপ পুলিশের।

হলি লাইফের কর্মকর্তা প্রথমে কোনো কথা বলতেই অস্বীকৃতি জানান। এমনকি বলেননি কারো নাম পরিচয়। পরে পরিচালক দাবি করা ব্যক্তি বলেন, বাথরুমে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ইয়াসিন। তবে ঘটনাস্থলে যেতে গণমাধ্যমকর্মীদের বাধা দেন।

ক্রাইম সিন থেকে তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করেছে সিআইডির একটি ইউনিট। যে উচ্চতার বাথরুম তাতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে পরিবার। আর ময়নাতদন্ত করে ঢাকা মেডিকেলের ফরেনসিক প্রধান জানান, শরীরে আঘাতের চিহ্ন আছে।

পরিবার হত্যার অভিযোগ দিলেও এখনও মামলা নেয়নি পুলিশ। হলি লাইফের বিরুদ্ধে অতীতের একাধিক অভিযোগ এখনও তদন্তাধীন। তবু বহাল তবিয়তে কোন খুঁটির জোরে?