মাদক ইনজেকশন রাখায় ব্যবসায়ীর ৫ বছর সাজা

বুধবার, মার্চ ৩, ২০২১

বরিশাল : নিজ হেফাজতে মাদক হিসেবে ব্যবহৃত ইনজেকশন রাখার অপরাধে মাদক কারবারি বাদল নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো তিনমাস কারাদন্ডের আদেশ দেয়া হয়।

১ মার্চ ২য় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত বাদল ওরফে মুসা হাওলাদার ওরফে বুদা ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার কুলকাঠি ইউনিয়নের বিহঙ্গল এলাকার মুজাহার হাওলাদারের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় সে আদালতে অনুপস্থিত ছিল।

বেঞ্চ সহকারি আব্দুর রহমান জানান, ২০১৭ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারী গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের এসআই সমীরণ মণ্ডল তার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বরিশাল নগরীর ২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জিয়া উদ্দিন সিকদারের কার্যালয়ের সামনে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করেন।তল্লাশি চালিয়ে তার কাছ থেকে ৪ পিস জি মরফিন ইনজেকশন, ৫ পিস ও মরফিন ইনজেকশন এবং ৫ পিস ফেনারেক্স ইনজেকশন উদ্ধার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে জানতে পারে বাদল উত্তর সাগরদী ভাড়া বাসায় বসবাস করে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিক্রি করে। এঘটনায় ওইদিনই কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

একই বছর ২৩ মার্চ তদন্তে সত্যতা পেয়ে থানার এস আই অরবিন্দ বিশ্বাস আসামি বাদলের বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করেন।রাষ্ট্রপক্ষ ৬ জনের সাক্ষ্য প্রদানে সক্ষম হয়। সাক্ষী প্রমাণে দোষী সাব্যস্ত হলে আদালত তাকে ওই সাজা দেন। রায়ের সময় পলাতক থাকায় তার বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা ও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।