সোনার দাম কমতে পারে

সোমবার, মার্চ ১, ২০২১

ঢাকা : বিশ্ববাজারে সোনার টানা দরপতন হলেও এখন পর্যন্ত প্রভাব পড়েনি দেশের বাজারে। তবে দেশে সোনার দাম কমার বিষয়ে খুব শিগগিরই সিদ্ধান্ত আসতে পারে।

টানা দুই সপ্তাহ বিশ্ববাজারে কমছে সোনার দাম। ধারাবাহিক দরপতনে সোনার দাম গত আট মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমে গেছে। ২৭ ফেব্রুয়ারির তথ্য অনুযায়ী, স্পট গোল্ডের দাম ২ দশমিক ৩৯ শতাংশ কমে প্রতি আউন্স হয়েছে ১৭৩৩ ডলার, যা গত বছরের জুনের পর সর্বনিম্ন।

সব সময় বিশ্ববাজারে দাম উত্থান-পতনের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের বাজারে সোনার দাম নির্ধারণ করে থাকে দেশের জুয়েলারি ব্যবসায়ীরা। তবে বিশ্ববাজারে টানা দরপতন হলেও দেশের বাজারে গত দেড় মাসে সোনার দাম কমানো হয়নি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস) সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বলেন, এখন বিশ্ববাজারে সোনার দাম নিম্নমুখী। রোববার আন্তর্জাতিক বাজার বন্ধ। সোমবার বাজার খুলবে। পরিস্থিতি দেখে আমরা সিদ্ধান্ত নেব- দাম কমাবো কি না।

এর আগে ১২ জানুয়া‌রি দেশের বাজারে সোনার দাম ভরি প্রতি প্রায় ২ হাজার টাকা কমানোর সিদ্ধান্ত নেয় বাজুসের কার্যনির্বাহী কমিটি। যা ১৩ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়। ওই নির্ধারিত দাম অনুযায়ী এখন ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) সোনার দাম ৭২ হাজার ৬৬৭ টাকা। ২১ ক্যারেটের সোনা ৬৯ হাজার ৫১৭ টাকা, ১৮ ক্যারেটের সোনা ৬০ হাজার ৭৬৯ টাকা ও সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি সোনা ৫০ হাজার ৪৪৭ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ক্যাটাগরি অনুযায়ী ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি রূপার মূল্য ১ হাজার ৫১৬ টাকা। ২১ ক্যারেটের রূপার দাম ১৪৩৫ টাকা, ১৮ ক্যারেটের দাম ১২২৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির রূপার দাম ৯৩৩ টাকা।