আমেরিকার সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ইরানের

সোমবার, মার্চ ১, ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে বলেছেন, পরমাণু সমঝোতার ব্যাপারে ইউরোপ সম্প্রতি যে অনানুষ্ঠানিক বৈঠকের প্রস্তাব দিয়েছে তার জন্য বর্তমান সময়কে উপযুক্ত মনে করছে না তেহরান। এই সমঝোতার ব্যাপারে আমেরিকা ও তিন ইউরোপীয় দেশের সর্বসাম্প্রতিক অবস্থান বিবেচনায় নিয়ে ইরান আলোচনায় না বসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলেও তিনি জানান।

তিনি বলেন, জো বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর এখন পর্যন্ত মার্কিন প্রশাসনের নীতি-অবস্থানে বিন্দুমাত্র পরিবর্তন আসেনি। বাইডেন প্রশাসন যে শুধু সাবেক ট্রাম্প প্রশাসনের ‘সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের’ ব্যর্থ নীতি অনুসরণ করে যাচ্ছে তাই নয় সেই সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা ও জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ২২৩১ নম্বর প্রস্তাবের ব্যাপারে নিজের করণীয় ঠিক করেনি।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নের জন্য নতুন করে কোনো দর কষাকষির প্রয়োজন নেই কারণ, দর কষাকষি যা করার পাঁচ বছর আগেই করা হয়ে গেছে। আমেরিকাকে অবশ্যই অবৈধ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসতে হবে। এজন্য কোনো ধরনের আলোচনা বা নিরাপত্তা পরিষদে নতুন প্রস্তাব পাসের প্রয়োজন নেই।

খাতিবজাদের এ বক্তব্যের কিছুক্ষণ আগে মার্কিন দৈনিক ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল দু’জন পশ্চিমা কূটনীতিকের উদ্ধৃতি দিয়ে জানায়, ইরান পরমাণু সমঝোতার ব্যাপারে আমেরিকার উপস্থিতিতে বাকি পাঁচ জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে আলোচনায় বসার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে। হোয়াইট হাউজ ইরানের এ সিদ্ধান্তে দুঃখ প্রকাশ করেছে।

পরমাণু সমঝোতার তিন ইউরোপীয় শরীক ফ্রান্স, জার্মানী ও ব্রিটেন গত সপ্তাহে ইরানকে আমেরিকার সঙ্গে এই সমঝোতার ভবিষ্যত নিয়ে আলোচনায় বসার প্রস্তাব দিয়েছিল।