হঠাৎ কানে ব্যথা হলে

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১

স্বাস্থ্য ডেস্ক : কোনোরকম ব্যথাই সুখকর নয়। কারণ অসুখের মানে হলো সুখের অভাব। কানে ব্যথা – শুনতে হালকা মনে হলেও বিষয়টি মোটেও হালকা নয়। হয়তো আরামে ঘুমাচ্ছিলেন, ঘুম ভাঙলো প্রচণ্ড কানে ব্যথা নিয়ে।

এমন পরিস্থিতিতে পড়তে পারে যে কেউ। কানে ব্যথা বলে অবহেলা করা যাবে না। কারণ ছোটখাট সমস্যা থেকেই দেখা দেয় গুরুতর সমস্যা।

তবে এমন সময়ে যদি কানে ব্যথা হয় যখন চিকিৎসকের কাছে যাওয়া সম্ভব নয়, তখন কী করবেন? সেজন্য জানা থাকা প্রয়োজন এমনকিছু ঘরোয়া উপায় যা আপনার কানে ব্যথা দূর করতে সাহায্য করবে।

কানে ব্যথা কেন হয়?

কানে ব্যথা হওয়ার থাকতে পারে অনেক কারণ। সাধারণত ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের কারণে কানে ব্যথা হতে পারে। আবার অনেক সময় দীর্ঘদিন সর্দি-কাশি লেগে থাকলে কানে ব্যথা হয়। গোসলের সময় অসাবধানতাবশত কানে পানি গেলে সেখান থেকেও কানে ব্যথা হতে পারে। কানে ব্যথা যদি সংক্রমণজনিত হয় তবে তা দূর করার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। তবে কানে ব্যথা কমানোর জন্য কিছু ঘরোয়া উপায় জেনে রাখতে পারেন।

সেঁক দিতে পারেন

কানে ব্যথায় গরম সেঁক দিলে আরাম পাওয়া যায়। যদি কান থেকে পুঁজ বের হয় তবে কানে গরম সেঁক দিন। তাতে কানের ভেতর জমে থাকা পুঁজ বের হবে এবং ব্যথাও কমবে অনেকটা। কানে গরম সেঁক দেয়ার জন্য প্রথমে গরম পানিতে একটি পরিষ্কার সুতির কাপড় ভিজিয়ে নিংড়ে নিতে হবে। এরপর যে কানে ব্যথা সেখানে সেই ভেজা কাপড় মিনিট দুয়েক ধরে রাখতে হবে। এবার কাপড় সরিয়ে নিয়ে যে কানে ব্যথা সেই কান একদিকে কাত করলেই পুঁজ বেরিয়ে যাবে।

হাইড্রোজেন পারক্সাইডের ব্যবহার

এটি আপনি ওষুধের দোকানে কিনতে পাবেন। কানের যেকোনো সংক্রমণ দূর করতে এটি দারুণভাবে কাজ করে। একটি ড্রপারে তিন-চার ফোঁটা দ্রবণ নিয়ে যে কানে ব্যথা সেখানে দিয়ে কিছুক্ষণ শুয়ে থাকুন। তারপর মাথা অন্যদিকে কাত করলে ভেতরের তরল বের হয়ে যাবে। এরকমটা দিনে বেশ কয়েকবার করলে উপকার পাবেন। এতে সংক্রমণ কমে আসবে, সেইসঙ্গে কমবে ব্যথাও।

রসুন ও তেলের ব্যবহার

কানে ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে রসুন ও তেল। সেজন্য প্রথমে সামান্য অলিভ অয়েলে এক কোয়া রসুন থেঁতলে দিন। এরপর সেই তেলটুকু হালকা গরম করে নিন। কোনোভাবেই উত্তপ্ত গরম তেল কানে ব্যবহার করবেন না। তাতে কান ক্ষতিগ্রস্ত হবে। সামান্য গরম হলেই নামিয়ে নিন। এবার সেই তেল ছেঁকে নিয়ে প্রতিদিন ব্যথাযুক্ত কানে দুই-তিন ফোঁটা দিন। এভাবে নিয়মিত দিলে কানে আরাম পাবেন।

খেয়াল করুন

এসব সমাধান আপনাকে কানে ব্যথা থেকে সাময়িক মুক্তি দেবে। কারণ আপনার কানে যদি সংক্রমণ হয়ে থাকে তবে ঘরোয়া চিকিৎসায় তা সারানো সম্ভব হবে না। তাই ব্যথা কমানো এবং আরামের জন্য আপনি এসব উপায় বেছে নিতে পারেন। তবে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া জরুরি।