জামালপুরে হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৮, ২০২১

জামালপুর : জামালপুরে ট্রিপল মার্ডার মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড অপরজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত।

গতকাল বুধবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জিন্নাৎ জাহান ঝুনু এই রায় দেন। সকল আসামীর উপিস্থিতিতেই এই রায় দেয়া হয়।

সরিষাবাড়ী উপজেলায় ২০১৩ সালের ১৪ নভেম্বর বিকেলে পিংনা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নলসন্ধ্যা গ্রামের বাসিন্দা মো. ফজলুর রহমান (৫০) ও তার সঙ্গী ইউসুফ (৫২) যমুনা নদীর বাসুরিয়া খেয়াঘাট থেকে কোরবান আলী তালুকদারের (৬০) ইঞ্জিনচালিত নৌকাযোগে বাড়ী ফিরছিলেন।

চর নলসন্ধ্যা খেয়াঘাটের কাছে পৌছালে পূর্ব শত্রুতার জেরে জলদস্যু আব্দুল হাইয়ের নেতৃত্বে নৌকাসহ অপহরণ করে যমুনা নদীর গভীরে নিয়ে হত্যা করে। ঘটনার তিনদিন পরে ইউসুফ ও পাঁচদিন পরে ফজলুর রহমানের মৃতদেহ যমুনা নদী থেকে উদ্ধার করা হলেও কোরবান আলী নিখোঁজ রয়েছে।

এ ব্যাপারে নিহত ফজলুর রহমানের স্ত্রী সুরাইয়া খাতুন (৪৫) বাদী হয়ে আব্দুল হাইকে প্রধান আসামী করে ১৪ জনের বিরুদ্ধে সরিষাবাড়ী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে ২০১৬ সালের ১২ জুলাই চার্জশীট দাখিল করে সিআইডি। পরবর্তীতে মামলার সকল আসামিকে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

মামলায় ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যের ভিত্তিতে আসামী বেলাল (৩৫) কে মৃত্যুদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমান, হুরমুজ আলী (৩৭) কে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ১২ জনকে খালাসের আাদেশ দেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জিন্নাৎ জাহান ঝুনু।

মামলায় আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আবুল কাশেম।