করোনার নতুন লক্ষণ!

বুধবার, জানুয়ারি ২৭, ২০২১

চট্টগ্রাম : করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার নতুন কিছু বৈশিষ্ট্য ধরা পড়েছে এক গবেষণায়। তাতে দেখা গেছে, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত প্রতি চার জন ব্যক্তির মধ্যে একজনের গলা, জিহ্বায় গোঁটা ওঠে, ফুলে যায়। আবার শতকরা ৪০ ভাগ রোগীর ক্ষেত্রে এসব সংক্রমণ লাল হয়ে দেখা দেয়। হাতে ও পায়ে লাল হয়ে তাতে প্রদাহ দেখা দেয়। স্পেনের হসপিটাল ইউনিভার্সিটারিও লা পাজ-এর একদল গবেষক এমন তথ্য দিয়েছেন। তারা করোনা ভাইরাসে হালকা লক্ষণযুক্ত ৬৬৬ জন রোগীর ওপর গবেষণা পরিচালনা করেন। এসব রোগী মাদ্রিদে একটি ফিল্ড হাসপাতালে ২০২০ সালের ১০ই এপ্রিল থেকে ২৫শে এপ্রিল পর্যন্ত চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে মুখে, হাতে অথবা পায়ে পরিবর্তনের বিষয় রিপোর্ট করেছেন শতকরা ৪৫.৭ ভাগ রোগী।

প্রতি চারজনের মধ্যে একজন বলেছেন তারা কথিত ‘কোভিড টাং’ বা গলায় করোনার লক্ষণযুক্ত প্রদাহে ভুগছেন। এক্ষেত্রে প্রদাহ ছাড়া তাদের বিভিন্ন অঙ্গ ফুলে গেছে। শতকরা প্রায় ৪০ ভাগ রোগী বলেছেন তাদের হাতের তালু এবং পায়ের পাতা লাল ও বাদামি দাগে ভরে গেছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডেইলি মেইল।

গবেষণায় এমন সব তথ্য পাওয়ার পর গবেষকরা চিকিৎসক এবং নার্সদের পরামর্শ দিয়েছেন রোগীর মুখে কোনো ক্ষত আছে কিনা, হাতে ও পায়ে কোনো সন্দেহজনক লক্ষণ আছে কিনা সেদিকে নজর রাখতে। গবেষকদের এই গবেষণালব্ধ ফল প্রকাশিত হয়েছে সেপ্টেম্বরে বৃটিশ জার্নাল অব ডার্মাটোলজিতে। কিন্তু তাদের গবেষণা উপস্থাপন করা হয়েছে মঙ্গলবার। এতে বলা হয়েছে, গবেষণায় দেখা গেছে বেশির ভাগ রোগীর গলায়, জিহ্বায় ছোট ছোট গোঁটা বা লাল দাগের মতো দেখা গিয়েছে। এসব অনেক সময় আলসারের মতো দেখা যায়। শতকরা ৬.৬ ভাগ গ্লোসিটিসের বিষয় রিপোর্ট করেছেন। এটা হলো জিহ্বার এক রকম প্রদাহ। এটা আকারে বৃদ্ধি পেতে থাকে এবং রঙ পরিবর্তন হতে থাকে। শতকরা ১৫ ভাগ রোগীর ক্ষেত্রে তাদের হাতের ও পায়ের তালুতে লালচে বাদামি দাগ দেখা গিয়েছে।