অপহরণের পর গৃহবধূকে রাতভর ধর্ষণ, ভিডিও ভাইরালের হুমকি

রবিবার, জানুয়ারি ২৪, ২০২১

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে এক গৃহবধূকে অপহরণের পর রাতভর ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের অভিযোগ উঠেছে ইয়ার মাহমুদ ওরফে মামুন নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ধারণ করা ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে এরপরও কয়েকবার তাকে ধর্ষণ করে মামুন। আইনের আশ্রয় নিলে ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয়ার হুমকিও দেয়া হয়েছে ভুক্তভোগীর পরিবারকে।

অভিযুক্ত মামুন মিয়া ওই উপজেলার ধলাপাড়া ইউনিয়নের কামালপুরের সিরাজ মিয়ার ছেলে। দিনের পর দিন অত্যাচার সইতে না পেরে গত ৩ জানুয়ারি টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেছেন ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ। এরপর থেকে মামলা তুলে নিতে তাকে হুমকি দিচ্ছে ধর্ষক মামুন ও তার পরিবার।

ধর্ষণের স্বীকার গৃহবধূ বলেন, মামুন দীর্ঘদিন ধরে আমাকে কুপ্রস্তাব দিচ্ছিল। আমি সাড়া না দেয়ায় গত বছরের ২ ডিসেম্বর রাতে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায় সে। এরপর নিজের ফার্মের একটি ঘরে আটকে রেখে সারারাত ধর্ষণ ও নির্যাতন করে। শুধু তাই নয়, মোবাইলে সেই ঘটনার ভিডিও ধারণ করে। এরপর সেই ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেয়া ও ধর্ষণের ঘটনা কাউকে জানালে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে আরো কয়েকবার ধর্ষণ করে।

তিনি আরো বলেন, দিনের পর দিন নির্যাতন সইতে না পেরে আমি মামুনের বিরুদ্ধে মামলা করি। এরপর থেকে মামলা তুলে নিতে আমাকে ও আমার পরিবারকে হুমকি দিয়ে আসছে মামুন ও তার পরিবারের লোকজন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ধলাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার ওয়াজেদ আলী। তিনি বলেন- ধর্ষণের বিষয়টি মীমাংসার জন্য দুই পক্ষকে ডেকেছিলাম। কিন্তু মামুনের পক্ষের কেউ না আসায় সালিশ হয়নি।